ময়মনসিংহ চতুর্থ ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র খুন, আটক ২৮

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র খুন হয়েছে। নিহতের নাম রফিকুল ইসলাম (১১)। সে উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের শাহগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র। সে ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের ওসমান গনি ওরফে সাত্তার এর পুত্র। মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য উদঘাটিত হয়নি।

রফিকুল ইসলামের খুন হওয়াকে কেন্দ্র করে শাহগঞ্জ বাজারে আওয়ামী লীগ-বিএনপি দু’গ্রুপের সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এ ঘটনায় পুলিশ বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. জায়েদুর রহমানসহ ২৮জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, শাহগঞ্জ বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে রাত ৮টার দিকে গাগলা গ্রামের আব্দুল্লাহ’র বাড়ির সামনে যেতেই দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে কুপিয়ে রফিকুল ইসলাম (১১) কে গুরুত্বর আহত করে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে রাত ৯টার দিকে মৃত্যু হয়।

আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল ইসলাম অন্তর (ভিপি শহীদ) জানান, ধানের শীষের প্রার্থী মো. জায়েদুর রহমানের নির্দেশেই তার লোকজন শিশুটির পিতা নৌকার নির্বাচন করার কারণেই তাকে হত্যা করা হয়েছে। মৃত্যুর খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে নৌকা সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং শাহগঞ্জ বাজারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মুহূর্তেই দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. জায়েদুর রহমান, তার ভাই মিজানুর রহমানসহ ২৮জন নেতাকর্মী ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন।

চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ অবরুদ্ধ নেতাকর্মীদের থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এ প্রতিবেদন পাঠানো পর্যন্ত রাত ১১টায় ২৮জন নিরাপত্তা হেফাজতে অথবা আটক বা গ্রেফতার রয়েছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য গৌরীপুর সার্কেলের এএসপি আক্তারুজ্জামান পিপিএম ও পুলিশ ইনচার্জ মো. আখতার মোর্শেদের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে মোতায়েন রয়েছে।

Facebook Comments