জনদূর্যোগ চরমে নলছিটি গোছরা গ্রামের একমাত্র সরকারী হালটটি ভরাট করে ঘর নির্মান করছে ভুমিদস্যুরা॥

বরিশাল ব্যুরো নলছিটি প্রতিনিধি: ঝালকাঠীর নলছিটি উপজেলার গোছরা গ্রামের একমাত্র সরকারী হালটটি বেদখল করে ভুমিদস্যুরা বাড়ি তৈরি করায় চরম দুর্ভোগে পরেছে গ্রামের হাজারও মানুষ। অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিন পরিদর্শন ও অসুসন্ধানে জানা যায় আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হওয়া গোছরা গ্রামের ভুমিদস্যু খ্যাত মোহাম্মদের ক্যাডার পুত্র আবুল কালাম এলাকার কিছু সংখ্যক দুঃস্কৃতি কারীদের সহায়তায় ১৩৮ নং গোছরা মৌজার এস এ খতিয়ান নং ২৬০, দাগ নং ৪১৫ এ সরকারী ভাবে নির্ধারিত ৪২ শতাংশ জমি বেদখলের উদ্দেশ্যে সরকারী হালটটি ভরাট করে একখানা টিনের ঘর উত্তেলন করেছে। এর ফলে বর্ষা মৌসুমে নদীর পানি সরবরাহ ও অতিরিক্ত পানি নিঃস্কাসনের একমাত্র হালটটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এলাকার কৃষি ব্যবস্থা চরম হুমকির মুখে পরেছে। এ সময় তার দুস্কর্মের দোসর একই গ্রামের এসকেন মল্লিকের ছেলে লতিফ মল্লিক, আনছার মল্লিকের ছেলে নাছির মল্লিক, মালেক মল্লিকের ছেলে জাকির মল্লিক, বাদের মল্লিকের ছেলে ফোরকান মল্লিক, রওন মল্লিকের ছেলে কবির মল্লিক, এসকেন মল্লিকের ছেলে স্বপন মল্লিক, মুজাহার মল্লিকের ছেলে আনছার মল্লিক ও মজিবর মল্লিক, এসকেন্দার মল্লিকের ছেলে আবুয়াল মল্লিক সহ ১৫/২০ জন অজ্ঞাত ভারাটের মাস্তানদের সক্রীয় উপস্থিতিতে ঘর খানা নির্মিত হয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়াও উল্লেখিত দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক অন্যের জমির গাছ আত্মসাৎ সহ নান অত্যাচার জুলুমের এন্তার অভিযোগ রয়েছে। জনস্বার্থে উত্তোলিত ঘরখানা অপসারন পূর্বক ভুমিদস্যুদের কবল হতে ভুমি রক্ষাকরতঃ দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন এলাকার আপমর জন সাধারন। এ ঘটনায় গোছরা গ্রামের মৃতঃ ওয়াজেদ হাওলাদারের ছেলে নলছিটি উপজেলার অবসর প্রাপ্ত সি, এ আবুয়াল হোসেন হাওলাদার প্রতিকার চেয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একখানা লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Facebook Comments