রাবি ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত নেতার কক্ষ ভাঙচুর

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কৃত সভাপতির কক্ষে ভাঙচুর ও লুটপাট চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ২২২ ও ২৩২ নম্বর কক্ষে এ ভাঙচুর চালানো হয়।

হল সূত্রে জানা যায়, দুই গ্রুপের মারামারির জের ধরে রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান রানাকে শনিবার রাত ৯টার দিকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর থেকে অনুগত নেতাকর্মীদের নিয়ে তিনি বঙ্গবন্ধু হলে অবস্থান করছিলেন। রাত ৩টার দিকে রানা তার পক্ষের নেতাকর্মীদের নিয়ে হল ছেড়ে চলে যান।

বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান রানা পক্ষের নেতাকর্মীদের দাবি, তারা হল থেকে বের হওয়ার পরপরই রাবি ছাত্রলীগের অপর একটি গ্রুপ হলের ২২২ ও ২৩২নং কক্ষের তালা ভেঙে দখলে নেয়। এ সময় তারা ওই দুই কক্ষের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে ও মালামাল নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সভাপতি ড. আশরাফ উজ জামান বলেন, ‘হলের রুমগুলোতে মিজানুর রহমান রানা ও তার অনুসারীরা থাকতো। গত রাতে তারা হল ত্যাগ করে এবং যাওয়ার সময় কিছু জিনিসপত্র বাইরে ফেলে রেখে যায়। এখন রুমগুলো সিলগালা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান রানাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গত শনিবার তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তাকে বহিষ্কার করে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জুকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

এর আগে শনিবার বেলা ৩টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মিজানুর রহমান রানার অনুসারীরা ছাত্রলীগের কর্মী বনিকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।

Facebook Comments