অদ্ভূত পাহাড়ি সিংহ নিয়ে রহস্য

আমেরিকার প্রিসটন শহরটির চারপাশেই পাহাড়। সেখানে অদ্ভূত এক পাহাড়ি সিংহের দেখা মিলেছে। সিংহটির মাথার ওপরের বাম পাশের অংশে দুটি দাঁত রয়েছে। সামান্য গোঁফও আছে।

এ নিয়ে রহস্যের দানা বেধেছে বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। এ ধরনের সিংহ এর আগে কখনো দেখা যায়নি।

বিষয়টি নিয়ে গবেষকদের ঘুম হারাম হওয়ার যোগার হয়েছে। বিরল এই ইস্যুটি নিয়ে একের গবেষক একেক ধরণের ব্যাখ্যা দাড় করানোর চেষ্টা করছেন।আন্তর্জাতিক মিডিয়ায়ও বিষয়টি ফলাও করে প্রকাশ করা হচ্ছে।

গবেষকদের ধারণা, সিংহটির জমজ দাঁতের সংযোগস্থলটি গর্ভাবস্থায় নষ্ট হয়ে গিয়ে অন্য ভ্রুনের সঙ্গে মিশে যায়। পরে নিজেই নিজেই বড় হয়ে উঠে।

অন্য এক ব্যাখায় বলা হয়েছে, এক ধরনের টিউমারের জন্য এ ধরনের অস্বাভাবিকতা হতে পারে। অদ্ভূত ওই টিউমারের কারণে এই দাঁত ও চুল গজাতে পারে। এই ধরনের টিউমারের কারণে মানুষেরও হাত পায়ের আঙুল গজাতে পারে।

প্রিস্টন শহরে পাহাড়ি সিংহ সচারচর দেখা যায় না। তবে কদাচিৎ এর দেখা মিললে আইনগতভাবে শিকারের অনুমতি রয়েছে।

এই জাতীয় সিংহ সাধারণত হরিন শিকার করে খায়। মাঝে মধ্যে মানুষের বাড়িতেও হানা দিয়ে গৃহপালিত পশু খেয়ে থাকে।

গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর পাহাড়ি ওই সিংহ লোকালয়ে একটি কুকুরকে আক্রমণ করে। এসময় সিংহটির পায়ের ছাপ অনুসরণ করে তাকে শিকার করা হয়।শিকারের পর দেখা যায় সিংহটি অদ্ভূত ধরনের।এ ধরনের সিংহ এর আগে কখনো দেখা যায়নি।

Facebook Comments

Leave a Reply