বহিরাগতদের নিয়ে ছাত্রী হল দখলে নিল ছাত্রলীগ

সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। হল থেকে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রীসহ তিন নেতাকর্মী বহিরাগতদের নিয়ে তালা ভেঙে হল কক্ষ নিয়ন্ত্রণে নেয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির নেতৃত্বে কক্ষের দখল নেয়া হয়।

জানা গেছে, ছাত্রলীগ সরকারি মুজিবুর রহমান মহিলা কলেজ শাখার সভানেত্রী আঞ্জুমান আকতার আয়না ও সাধারণ সম্পাদক রত্না সরকারের মধ্যে দীর্ঘ দিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। সভানেত্রীর কক্ষ থেকে মালামাল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বছরের ১৯ নভেম্বর সন্ধ্যায় দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা সভানেত্রী গ্রুপের কর্মী মোস্তাকিয়া আকতারকে বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

এঘটনার পর কলেজ কর্তৃপক্ষ সভানেত্রী ও সাধারণ সম্পাদক সহ উভয় গ্রুপের ৬ জনকে কলেজ হল থেকে বহিষ্কার করে এবং তাদের কক্ষ দু’টিতে কলেজ কর্তৃপক্ষ তালা দিয়ে রাখে। এরপর থেকেই হোস্টেল থেকে বহিষ্কৃত ৬ জনই ক্যাম্পাসের বাইরে অবস্থান করতেন।

শনিবার দুপুরে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈমুর রাজ্জাক তিতাসের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী কলেজে গিয়ে হলের ৪০৭ নং কক্ষে কলেজ কর্তৃপক্ষের ঝুলানো তালা ভেঙে হল থেকে বহিষ্কৃত কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রত্না সরকার, তার সহযোগী তোমানিয়া আফরিন তিমু এবং রোকেয়া সরকার তিশাকে কক্ষের দখল বুঝিয়ে দেয়। এনিয়ে সভানেত্রী গ্রুপের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈমুর রাজ্জাক তিতাস জানান, দু’পক্ষই হলের বাইরে অবস্থান করার বিষয়টি সমাধানের জন্য হল সুপারকে একাধিকবার অনুরোধ করা হয়েছে। তিনি কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় আমি দুই পক্ষকেই হলে অবস্থান নিতে বলেছি। আমার আহ্বানে সাড়া দিয়ে সাধারণ সম্পাদক হলে উঠলেও সভানেত্রী আসেনি।

Facebook Comments

Leave a Reply