মার্চ ৬, ২০২১

Latest News Before Everyone in Bangladesh

বিটেক শিক্ষার্থী লাঞ্ছিত, বাস ভাংচুর

১ min read

ভাড়া নিয়ে শিক্ষার্থীদের লাঞ্ছিত করেছে বাস কন্ডাক্টর। এ সংবাদে সহপাঠীদের মধ্যে তৈরি হয় উত্তেজনা। এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা সড়কে নেমে ড্রাইভার ও কন্ডাক্টরকে আটক করে বাস ভাংচুর করেন।
টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের (বিটেক) সামনে ৩য় বারের মতো এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে টাঙ্গাইল শহর থেকে সাগরদিঘীগামী ইমু-ইরা পরিবহনের একটি বাসে করে ক্যাম্পাসে ফেরার পথে সমাপনী বর্ষের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব, ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. মাশরেকুল হক শিহাব এবং মো. আক্তারুজ্জানের কাছে বাস কন্ডাক্টর নায্য ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করেন।

শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ভাড়া দিতে অস্বীকৃতি জানালে কন্ডাক্টরের সাথে শিক্ষার্থীদের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে কন্ডাক্টর তার সহযোগীদের নিয়ে শিক্ষার্থীদের লাঞ্ছিত করেন।

শিক্ষার্থীরা বিষয়টি ক্যাম্পাসে তাদের সহপাঠীদের জানান। এ বিষয়টি ক্যাম্পাসে জানাজানি হলে শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে অবস্থান নেন।

বাসটি ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকে (মহাসড়ক) পৌঁছলে শিক্ষার্থীরা বাসের গতিরোধ করে বাসটিকে আটক করেন।

এসময় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বাসের গ্লাস ভাংচুর করেন। কিছুক্ষণ পর বিটেক প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাসচালক ও হেলপার উদ্ভুত ঘটনার জন্যে ক্ষমা চাইলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

বাসের এক যাত্রী ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, অতিরিক্ত ভাড়া চাওয়ায় শিক্ষার্থীরা তা দিতে না চাইলে বাস শ্রমিক তাদের সাথে দুর্ব্যবহার শুরু করে। এসময় শ্রমিক শিক্ষার্থীদের হুমকি দিতে থাকে।

একাধিক শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই শিক্ষার্থীরা মালিক সমিতির স্বেচ্ছাচারিতার শিকার হয়ে আসছেন। ছাত্রদের কাছ থেকে অধিকাংশ সময় ন্যায্য ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায় করা হয়। তাছাড়া শহর থেকে ক্যাম্পাসে আসতে চাইলে শিক্ষার্থীদের গাড়িতে উঠতেও বাধা দেয় বাস কন্ডাক্টররা।

ঘটনার পরিপ্রক্ষিতে প্রশাসন জানায়, বিষয়টি টাঙ্গাইল বাস-মালিক সমিতিকে জানানো হয়েছে। আধঘন্টা পর টাঙ্গাইল বাস-মালিক সমিতির পক্ষ থেকে সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিয়ে বাসটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যান।

Facebook Comments

Leave a Reply