আসাদের ক্ষমতাচ্যুতির গোয়েন্দা রিপোর্ট উপেক্ষা ওবামার

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের ক্ষমতাচ্যুতির বিষয়ে মার্কিন সিনিয়র সেনা কর্মকর্তা ও গোয়েন্দাদের সতর্কতামূলক রিপোর্ট উপেক্ষা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এসব কর্মকর্তা ওবামাকে বলেন, আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করলে চরমপন্থিরা যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির ক্ষমতা গ্রহণ করবে এবং সেখানে বিশৃঙ্খলা মারাত্মক আকার ধারণ করবে। খবর প্রেসটিভির।

পুলিৎজার পুরস্কারপ্রাপ্ত মার্কিন সাংবদিক সেইমুর হার্শ ‘লন্ডন রিভিউ অব বুকস’ এ এই তথ্য দিয়েছেন। আগামী ৭ জানুয়ারি ‘লন্ডন রিভিউ অব বুকস’র এ সংখ্যা প্রকাশিত হবে। সেইমুর হার্শ জানান, ‘ওবামা বার বার পীড়াপীড়ি করেছেন যে, আসাদকে অবশ্যই ক্ষমতা ছাড়তে হবে এবং মধ্যপন্থি বিদ্রোহীরা তাকে পরাজিত করতে সক্ষম। এ বিষয়ে পেন্টাগনের জয়েন্ট স্টাফসহ বহু সিনিয়র কর্মকর্তা ওবামার সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করেছেন।’

সেইমুর হার্শ এ ব্যাপারে প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থা ও জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের দেয়া অত্যন্ত গোপন রিপোর্টের বরাত দিয়েছেন। ২০১৩ সালে দেয়া ওই রিপোর্টে হোয়াইট হাউসকে সতর্ক করে বলা হয়েছিল- আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করার পরিণত হবে খুবই মারাত্মক।

মার্কিন এ সাংবাদিক জানান, দেশটির প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল মাইকেল ফ্লিন তাকে বলেছেন যে, ২০১২ ও ২০১৪ সালে বার বার বেসামরিক নেতৃত্বকে সিরিয়া বিষয়ক নীতি সম্পর্কে সতর্ক করা হয়েছে। কিন্তু সে সতর্কতা উপেক্ষা করে সিরিয়ার কথিত মধ্যপন্থি সন্ত্রাসীদেরকে অস্ত্র ও অর্থ দেয়া অব্যাহত রাখে ওবামা প্রশাসন।

মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে তুরস্ককে বেছে নেয়া হয় এবং সিরিয়ার অত্যন্ত উগ্র গোষ্ঠী আইএস ও আল-নুসরা ফ্রন্টসহ সব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে এ কর্মসূচির আওতায় আনার টার্গেট করা হয়।

এ সম্পর্কে সাংবাদিক সেইমুর হার্শ বলেন, মার্কিন প্রশাসনের ওই হিসাব ছিল ভুল এবং সিরিয়ায় আসলে মধ্যপন্থি বা উদারপন্থি বিদ্রোহী বলে কিছু নেই।

Facebook Comments

Leave a Reply