ফ্রান্স ফুটবল দল থেকে করিম বেনজেমা বহিষ্কার

অবশেষে বহিষ্কার করা হলো ফ্রান্স ফুটবল জাতীয় দলের আক্রমণভাগের অন্যতম ভরসা করিম বেনজেমাকে। তবে এ বহিষ্কারের সিদ্ধান্তে আদালতের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে নয় বরং নিজেদের সিদ্ধান্তেই এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান ফ্রেঞ্চ ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট নোয়েল লে গ্রাঁত।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ফ্রেঞ্চ ফুটবল ফেডারেশন ও ইথিকস কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বেনজেমাকে জাতীয় দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনিও আরও বলেন, বেনজেমার সেক্স টেপ কেলেংকারি নিয়ে বিচার বিভাগ এখনও কোনও সিদ্ধান্ত না নিলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে যা প্রকাশ হয়েছে তার ভিত্তিতেই তাকে বহিষ্কার করা হলো।

ফলে আগামী বছর ঘরের মাঠে ইউরো কাপে এই রিয়াল মাদ্রিদে খেলা তারকা স্ট্রাইকারকে পাচ্ছে না ফ্রান্স।

রিয়াল মাদ্রিদের এ ফরাসি স্ট্রাইকার জাতীয় দলের সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনার একটি সেক্স টেপ নিয়ে বিতর্কে জড়ান। ভালবুয়েনার একটি সেক্স টেপ ব্ল্যাকমেইলারদের হাতে চলে যায়। তারা ফোন করে ভালুবয়েনার কাছে অর্থ দাবি করে। তা না হলে তারা সে টেপ ফাঁস করে দেয়ার হুমকি দেয়।

ওই সেক্স টেপ ফাঁস হওয়ার ব্যাপারে জাতীয় দলের সতীর্থ করিম বেনজেমার দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তোলেন তিনি। এতে বেনজেমার বিপক্ষে ফৌজদারি মামলায় তদন্ত চলছে। কিন্তু বেনজেমা তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করেন। রবং সতীর্থ ভালবুয়েনাকে সাহায্য করতে চেয়েছিলেন বলে তিনি জানান। কাউকে ব্ল্যাকমেইল করেননি বলে দাবি করেন তিনি।

কিন্তু ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন আপাতত দলের বাইরে রাখতে চায় বেনজেমাকে। তদন্ত শেষ হওয়ার পর নির্দোষ প্রমাণিত হলেই কেবল তাকে দলে ডাকবেন তারা।

আগামী বছর ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজক ফ্রান্স। করিম বেনজেমাকে সামনে রেখেই দল সাজানোর পরিকল্পনা করেছিলেন দলের কোচ দিদিয়ের দেশম। কিন্তু স্বাগতিকরা তাদের তারকা স্ট্রাইকারকে ইউরোপ-সেরা এ আসরে পাচ্ছে না।

Facebook Comments

Leave a Reply