মাছ সংরক্ষণে ফরমালিনের বিকল্প ‘সুপার পাউডার’

super_powderনিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর বিজ্ঞান ও গবেষণা কেন্দ্রে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালিয়ে ফরমালিনের বিকল্প হিসেবে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া এবং ছত্রাকনাশক ‘সুপার পাউডার’ তৈরি করেছে। ড. এম লতিফুল বারীর নেতৃত্বে এ গবেষণা চালানো হয়।

আমাদের দেশে ব্যবসায়ীরা স্বল্প সময়ের জন্য মাছ সংরক্ষণে সাধারণত বরফ ব্যববহার করে থাকে। আর বেশি সময় সংরক্ষণের জন্য কোল্ড স্টোরেজ অথবা ডিপ ফ্রিজে মাছ সংরক্ষণ করে। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ী মাছ সংরক্ষণের জন্য ক্ষতিকর ফরমালিন ব্যবহার করছেন। যা মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি ও পরিবেশের ক্ষতির কারণ।

ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি) এক প্রতিবেদনে ফরমালিনকে মানবদেহে ক্যান্সার সৃষ্টির প্রধান কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে।

scientistআর তাই একটি পরিবেশবান্ধব ও নিরাপদ প্রিজারভেটিভের চাহিদা দীর্ঘদিনের। এ চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক নাশকের গুণসম্পন্ন সুপার পাউডার নিয়ে ড. এম লতিফুল বারীর নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর বিজ্ঞান ও গবেষণা কেন্দ্রে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালায়।

সুপার পাউডার বা ‘স্ক্যালপ শেল’ কী?
সুপার পাউডার হল শামুক-ঝিনুক ইত্যাদির খোলসের গুঁড়া। এই ঝিনুক খোলস গুড়া বিভিন্ন ধরনের অণুজীব, বিশেষ করে ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কার্যকরী এবং খাদ্য সংরক্ষণে এর ব্যবহার সম্পূর্ণ নিরাপদ ও সাশ্রয়ী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা যায়, ০.০১ ভাগ সুপার পাউডারের দ্রবণ দিয়ে তৈরি বরফে মাছকে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রেখে দিলে ১৭দিন পর্যন্ত সম্পূর্ণ টাটকা থাকে। সুপার পাউডার ব্যবহার করলে মাছের চেহারা এবং স্বাদের কোনো পরিবর্তন হয় না।

এছাড়া মাছ সংরক্ষণে ব্যবহৃত এই বরফ গলা পরিত্যক্ত পানিতে অণুজীবের উপস্থিতি সাধারণ বরফ গলা পানির চেয়ে অনেক কম থাকে। যা নিশ্চিত করে জীবাণুমুক্ত স্বাস্থ্যকর পরিবেশ।

এই পদ্ধতিতে সংরক্ষণ করার আগে বিশুদ্ধ পানি দিয়ে মাছ ধুয়ে নিতে হবে এবং সংরক্ষণের যথার্থতা নিশ্চিত করতে প্রতি ২৪ ঘণ্টা পর পর ঝিনুক খোলস গুঁড়া মিশ্রিত বরফ পরিবর্তন করতে হবে।

যদি রেফ্রিজারেটরে সংরক্ষণ করা হয় তবে মাছকে মাত্র একবার সুপার পাউডারযুক্ত বরফ পানিতে চুবিয়ে রাখলে মাছ অনেকদিন পর্যন্ত টাটকা থাকে। এই গবেষণার ফলাফল আন্তর্জাতিক খাদ্য এবং প্রযুক্তি জার্নালে ২০১৫ সালের ১০ই জুন প্রকাশিত হয়েছে।

Facebook Comments

Leave a Reply