মেসির অনুপস্থিতিতে র‍্যাকিটিচ ম্যাজিক

ivanস্পোর্টস ডেস্ক : উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার মুখোমুখি হয়েছিল বাতে বরিসভ। গ্রুপ ‘ই’র এ ম্যাচে বেলারুশদের জায়ান্ট ক্লাব বাতের মাঠে আতিথ্য নেওয়া বার্সা ২-০ গোলে হারিয়েছে স্বাগতিকদের। দলের হয়ে দু’টি গোলই করেন ইভান রেকিটিচ।
ম্যাচে ছিলেন না বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সার প্রাণভোমরা লিওনেল মেসি। ইনজুরির কারণে কাতালানদের হয়ে মাঠে নামতে পারেননি মেসি। আরও ছিলেন না আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। দুই তারকা ছাড়া লুইস এনরিক তার প্রথম একাদশে মাঠে নামান টার স্টেগেন, দানি আলভেজ, জেরার্ড পিকে, মার্ক বারত্রা, জরদি আলবা, বাসকুয়েটস, মাশচেরানো, সার্জিও রবার্তো, মুনির আল হাদ্দাদি, লুইস সুয়ারেজ এবং নেইমারকে।
ম্যাচের দশম মিনিটে নেইমারের কর্ণার কিক থেকে বল পান রবার্তো। হেড করলেও তা রুখে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষক চেরনিক। একই মিনিটে আরেকবার কর্ণার কিক লাভ করে বার্সা। নেইমারের কর্ণার কিক থেকে এবারে বল পান মুনির। তার নেওয়া জোরালো শট প্রতিহত করেন চেরনিক। ফিরতি বলে সুয়ারেজ শট নিলেও তা স্বাগতিক ডিফেন্ডার এক খেলোয়াড়ের মাথায় লেগে আরেকবার কর্ণার হয়। তাতেও কোনো গোল আদায় করে নিতে পারেনি কাতালানরা।
২৯তম মিনিটে নেইমারের তুলে মারা ফ্রি-কিক হেড করেন জেরার্ড পিকে। সেখান থেকে বল পান বাসকুয়েটস। বোতের গোলবারের কোনাকুনি থেকে শট নেন তিনি। বল জালের দিকে না গিয়ে গড়িয়ে বাইরে চলে যায়।
৩৯ মিনিটের মাথায় আরেকবার গোলের সুযোগ পেয়েছিল অতিথিরা। দানি আলভেজের ক্রস থেকে হেড করেন রেকিটিচ। বল গোলবারের অল্প কিছু উপর দিয়ে চলে যায়। প্রথমার্ধের বাকি সময়ে কোনো গোল না হলে বিরতিতে যায় দুই দল।
বিরতি থেকে ফিরে আবারো বাতের গোলবারে ভিড় জমায় বার্সার তারকারা। প্রথমার্ধে সার্জিও রবার্তোর পরিবর্তে মাঠে নামা ইভান রেকিটিচ দলকে ৪৭ মিনিটের মাথায় এগিয়ে দেন। আতিথ্য নেওয়া বার্সার হয়ে গোল করেন এ ক্রোয়েশিয়ান তারকা। নেইমারের দারুণ পাস থেকে টপ-ডি’ বাইরে বল পেয়ে ডানপায়ের জোরালো শট নেন রেকিটিচ। স্বাগতিক গোলরক্ষক চেরনিককে এগিয়ে আসতে দেখেই ডি-বক্সের বাইরে থেকে রেকিটিচের নেওয়া শট বাতের জালে জড়িয়ে যায়। ফলে, ১-০তে লিড নেয় কাতালানরা।
৫৩ মিনিটে আলভেজের বাড়িয়ে দেওয়া বলে শট নিয়েছিলেন নেইমার। ব্রাজিল তারকার শটটি গোলবার ঘেঁষে বাইরে বেরিয়ে যায়।
মাঝমাঠ পার হয়ে কোনোভাবেই বার্সার ডি-বক্সে এগুতে পারছিল না বাতে। এনরিক শিষ্যদের আক্রমণ ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে স্বাগতিকদের ডিফেন্ডাররা।
ম্যাচের ৬৪ মিনিটে আরেকবার দলকে এগিয়ে নেন ফিফা ব্যালন ডি’অরে ২৩ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নেওয়া রেকিটিচ। নেইমারের বুদ্ধিদীপ্ত ডিফেন্স চেঁড়া পাসে এগিয়ে আসা গোলরক্ষকের উপর দিয়ে বল পাঠিয়ে মাথা ঠান্ডা রেখে গোলটি করেন রেকিটিচ। ফলে, ২-০তে এগিয়ে যায় অতিথি হিসেবে খেলতে নামা লুইস এনরিকের ট্রেবল জয়ী শিষ্যরা।
৬৯ মিনিটে মুনিরের বদলি হিসেবে মাঠে নামেন বার্সার আরেক তারকা সান্দ্রো রামিরেজ।
৭৮ মিনিটের মাথায় স্বাগতিক দর্শকদের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে বল নিয়ে বার্সার ডি-বক্সে প্রবেশ করেন সিগনেভিচ। অতিথি কাতালানদের পেনাল্টি এরিয়া থেকে তিনি যে দুর্বল শটটি নেন, তা নিজের গ্লাভসবন্দি করতে বেগ পেতে হয়নি বার্সার গোলরক্ষক টার স্টেগেনকে।
বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হয়ে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা তিন ম্যাচ থেকে গ্রুপের সর্বোচ্চ ৭ পয়েন্ট অর্জন করে টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে।

Facebook Comments

Leave a Reply