শত্রু যখন বন্ধু!

maraস্পোর্টস ডেস্ক : ফুটবল বিশ্বে যদি কোন দেশ দিয়েগো ম্যারাডোনাকে চরম শত্রু হিসেবে মেনে থাকে তবে সেটি হচ্ছে ইংল্যান্ড। ১৯৮৬ বিশ্বকাপে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির ‘হ্যান্ড অব গড’ এর কল্যানে জয় ছিনিয়ে আনে আলবিসেলেস্তিরা। অন্যদিকে বিশ্বকাপ আসর থেকে ছিটকে পড়ে ইংল্যান্ড। তবে সেই শত্রুকেই এবার কাছে টেনে নিচ্ছে দেশটি।
যুক্তরাজ্যের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছেন আর্জেন্টিনার ফুটবল ঈশ্বর দিয়েগো ম্যারাডোনা। বৃটিশ রাজতন্ত্র সমর্থিত একটি সংগঠনের প্রধান হিসেবে শিশুদের সাহায্যে কাজ করবেন এ কিংবদন্তি ফুটবলার।
এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে ম্যারোডোনা নিশ্চিত করেন, বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের হয়ে তিনি ল্যাটিন আমেরিকার ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করবেন। আর সাবেক আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে এমন সুযোগ দেওয়ার জন্য রানী এলিজাবেথকে ধন্যবাদ দিয়েছেন ম্যারাডোনা।
ম্যারাডোনা বলেন, ‘আমি রানী ও যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টকে ধন্যবাদ জানাই। আর বলতে চাই তাদের দেওয়া ল্যাটিন আমেরিকা ফাউন্ডেশনের হয়ে কাজ করতে আমি আগ্রহী। আসলে ৫৫ বছর বয়সে এটা আমার জন্য সেরা উপহার।
রানীকে উদ্দ্যেশ করে তিনি আরো বলেন, ‘ আমার জীবনের কঠিন সংগ্রামের পর আপনি আমাকে সম্মানিত করেছেন। এই সম্মানটি আমি চেয়েছিলাম। আশাকরি ল্যাটিন আমেরিকার শিশুরা আমার সঙ্গে থেকে দারুণ সময় উপভোগ করবে আর আমাকে এই পদে বসানোর জন্য আপনার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।’
ম্যারাডোনা আরো যোগ করেন, ‘আমি নিজেকে ন্যায়বান মনেকরি, আর দুর্নীতিগ্রস্থ মানুষের জায়গা আমার কাছে নেই। আমি শিশুদের জন্য সেরা কাজটিই করতে চাই। আমরা তাদের মুখে হাসি দেখতে চাই আর এটাই আমাদের কামনা। এই কাজে কোন রকম দুর্নীতি হবে না, এ ব্যাপারে আমি আপনাকে নিশ্চিত করছি। বৃটিশ পার্লামেন্ট ও রানীর প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা রইল।’

Facebook Comments

Leave a Reply