গরুর হৃদপিণ্ডে জীবন পেল মানুষ!!!

heartগরুর হৃদপিণ্ডের ভালব থেকে নতুন জীবন পেলেন ৮১ বছরের এক বৃদ্ধা।
রোববার চেন্নাইয়ের ফ্রোনশিয়ার লাইফ লাইন হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করে গরুর বাল্বটি ওই বৃদ্ধার হৃদপিন্ডে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।
এ ব্যাপারে হাসপাতালের চিকিৎসক ড. কে এম চেরিয়ান বলেন, যারা  মহাধমনীর সরু হয়ে যাওয়ায় অস্ত্রোপচারের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকেন এই পদ্ধতিটি সেরকম ওপেন হার্ট সার্জারির বিকল্প একটি পদ্ধতি।
চিকিৎসকরা আরো জানিয়েছেন, ১১ বছর আগে ওই বৃদ্ধার হৃদপিণ্ডের ভালব প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল। কিন্তু এ বছরের শুরুতে আবারও তার হৃদপিণ্ডে সমস্যা দেখা দেয়।
এছাড়া তার শ্বাসকষ্টের সমস্যাও হচ্ছিল। এ কারণে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে গেলেও চিকিৎসকদের কাছে ইতিবাচক কোনো সাড়া পাননি তিনি।
পরে এপ্রিলে তাকে চেন্নাইয়ের ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে দেখেন যে তার মহাধমনীতে আগে যে ভালব প্রতিস্থাপিত হয়েছিল সেটি সংকীর্ণ ছিল।
চিকিৎসকেরা বলেন, সাধারণত এ ধরনের সমস্যায় ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয় এবং পুরোনো ভালব সরিয়ে নতুন করে তা প্রতিস্থাপন করা হয়।
কিন্তু রোগীর বয়স বেশি হওয়ায় চিকিৎসকরা ‘ইনভেসিভ’ পদ্ধতি বেছে নেন ওই বৃদ্ধার চিকিৎসার ক্ষেত্রে। এরপর গরুর হৃদপিণ্ডের কলা বা টিস্যু দিয়ে তৈরি একটি জৈব-কৃত্রিম ভালব ব্যবহার করেন তারা।
অর্থাৎ পুরোনোটি বদলে নতুন করে ভালব প্রতিস্থাপন না করে একটি নতুন ভালব পুরোনোটির মধ্যেই স্থাপন করা হয়েছে। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে চারজন চিকিৎসকের একটি প্রতিনিধি দল এ অস্ত্রোপচার করেন।
চিকিৎসকেরা জানান, অস্ত্রোপচারের পরে রোগীর অবস্থা স্বাভাবিক রয়েছে এবং তাকে সাধারণ ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে।

Facebook Comments

Leave a Reply