আরও ৩০৬২ জনের করোনা শনাক্ত

বিশেষ সংবাদদাতা : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কিছুটা নিম্নমুখী। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হিসেবে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও তিন হাজার ৬২ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ তিন হাজার ৬৮০ জনে।

একই সময়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে আরও ৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ হাজার ২৭৪ জনে।

বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ৭৯১টি ল্যাবরেটরিতে ২৯ হাজার ৬১৩টি নমুনা সংগ্রহ ও ৩০ হাজার ২৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৯ লাখ ৫৮ হাজার ৬৩৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১০ দশমিক ১১ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন পাঁচ হাজার ৯৯৯ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৯৮৪ জন। সুস্থতার হার ৯৫ দশমিক ২৩ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃত ৭৯ জনের মধ্যে বিশোর্ধ্ব তিনজন, ত্রিশোর্ধ্ব পাঁচজন, চল্লিশোর্ধ্ব আটজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১৫ জন, ষাটোর্ধ্ব ২২ জন, সত্তরোর্ধ্ব ১৪ জন, আশি-ঊর্ধ্ব ১১ জন, নব্বই বছরের বেশি বয়সী একজন রয়েছেন।

বিভাগওয়ারী হিসাবে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ২৮ জন, চট্টগ্রামে ২৩ জন, রাজশাহীতে আটজন, খুলনায় চারজন, বরিশালে তিনজন, সিলেটে আটজন, রংপুরে দুইজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে তিনজনের মৃত্যু হয়।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

Facebook Comments