কপোতাক্ষ, বেত্রাবতী, ভৈরব নদীর দখল ও দূষণ রোধে কাজ করবে নবগঠিত সবুজ আন্দোলন যশোর জেলা কমিটি

পরিবেশবাদী সংগঠন সবুজ আন্দোলন জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ বিপর্যয় নিয়ে কাজ করছে। বাংলাদেশের প্রাচীন জনপদ যশোর জেলার পরিবেশ বিপর্যয় রোধে জনসচেতনতা তৈরির জন্য জেলা আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেন সবুজ আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান বাপ্পি সরদার এবং মহাসচিব মহসিন সিকদার পাভেল। গত ২৬ জুন কেন্দ্রীয় কার্যালয় মালিবাগে সবুজ আন্দোলন ৩১ সদস্য বিশিষ্ট যশোর জেলা আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

এসময় নেতৃবৃন্দ যশোর জেলায় কপোতাক্ষ, বেত্রাবতী, ভৈরব নদী দখল ও দূষণ রোধে নবগঠিত সবুজ আন্দোলন যশোর জেলা কমিটি কাজ করবে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এছাড়াও বৃক্ষরোপন, আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধি, জৈবসারের বহুবিধ প্রচলন, মৎস্য ও হ্যাচারী শিল্পের বিকাশ সাধনে কাজ করবে নবগঠিত কমিটি।

নবগঠিত যশোর জেলা কমিটির আহ্বায়ক হয়েছেন অধ্যাপক আনামুল কাদীর শামিম এবং সদস্য সচিব মোঃ রবিউল ইসলাম। কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন, যুগ্ম আহ্বায়ক উদ্ভাবক মোঃ মিজানুর রহমান, প্রভাষক আসাদুজ্জামান আসাদ,
প্রভাষক পাপিয়া সুলতানা, মোছাঃ তাহমিনা আক্তার শিল্পী, মোঃ ইয়াকুব আলী মাস্টার, ডাঃ ফরহাদ হোসেন, মোঃ মেহেদী আল মাসুদ, সদস্য মোঃ আইয়ুব আলী, অজয় বিশ্বাস অলক, রাকিব হাসান মুন্না, মোঃ শের আলী, সেলিনা রহমান, নিলুফা ইয়াসমিন, প্রভাষক নেয়ামত উল্লাহ, প্রভাষক আসাদুজ্জামান মাসুদ, মোঃ আব্দুর রশিদ মাস্টার, মোঃ কামরুজ্জামান মাস্টার, মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, মোঃ মামুন হোসেন, মোছাঃ তাসলিমা আক্তার শিল্পী, মোঃ তরিকুল ইসলাম, মধুসূদন সরকার, দেবব্রত সরকার, হুমায়ন কবির রোকন, মোঃ নান্নু মিয়া, মোঃ বিল্লাল হোসেন, সোহেল রানা
সাইফুদ্দিন আহমেদ ও সাংবাদিক মোঃ জসিম উদ্দিন।

নবগঠিত কমিটির উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন কৃষিবিদ কবির খাঁন, মোঃ সেলিম রেজা (প্রধান শিক্ষক), ব্যাংকার কবির হোসেন ও মোঃ মনিরুজ্জামান (প্রধান শিক্ষক)।প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Facebook Comments