স্বর্ণ দিয়ে তৈরি করা হয় বিরিয়ানি

ফিচার ডেস্ক : বাঙালিরা বিরিয়ানি পাগল! সবাই এ খাবারটি চেটেপুটে খেয়ে থাকেন! ছোট-বড় সবারই পছন্দ বাহারি স্বাদের বিরিয়ানি। এক বিরিয়ানি যে কত রকমভাবে তৈরি করা যায়, তা শুধু রন্ধনশিল্পীরাই জানেন!

বিরিয়ানি কি শুধু বাঙালিরাই খেয়ে থাকেন! মোটেও নয়, আরব আমিরাত থেকে শুরু করে পাকিস্তান, সৌদি আরবসহ বিভিন্ন দেশের মানুষেরা বিরিয়ানি খেয়ে থাকেন। তাই বলে কখনো কি শুনেছেন, এক প্লেট বিরিয়ানির দাম ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

অবাক হওয়ার মতোই বিষয় এটি। এ বিরিয়ানির বিশেষত্ব কী? স্বর্ণ দিয়ে তৈরি করা হয় এ বিরিয়ানি। ভোজ্য স্বর্ণ ব্যবহৃত হয় এ বিরিয়ানিতে। এ কারণেই এতো দাম।

দুবাইয়ের ‘বোম্বাই বরো’তে পাওয়া যায় বিশ্বের সবচেয়ে দামি এ বিরিয়ানি। সেখানকার বাসিন্দাসহ দেশ-বিদেশের পর্যটকদের এক প্লেট বিরিয়ানির খেতে গুণতে হয় ২ হাজার ডলার!

‘জায়ান্ট রয়্যাল গোল্ড বিরিয়ানি’ প্লেটারটি নিলে দু’জন খেতে পারবে। ঝকঝকে সোনার ভোজ্য মোড়কে কাবাবসহ বিরিয়ানির প্লেটে থাকে বিশেষ সব পদ। এখানে চার ধরনের বিরিয়ানি পাওয়া যায়। এ থালা বিরিয়ানিতে পর্যাপ্ত মাংস এবং কাবাব থাকে।

এ ছাড়াও এক প্লেট বিরিয়ানির সঙ্গে থাকে মুরগির কাবাব, মুরগির সোলা এবং বিফ চপসহ বিভিন্ন আইটেম। বিরিয়ানির সঙ্গে মুঘলাই কোফতা এবং মুরগির রোস্টের স্বাদও ভুবন ভোলানো।

এক প্লেট ‘জায়ান্ট রয়্যাল গোল্ড বিরিয়ানি’র মূল আকর্ষণ হলো কাশ্মীরি শিক কাবাব। যার স্বাদ একবার খেলে ভুলতে পারবেন না!

দুবাই ক্যাপিটাল ক্লাবের ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স সেন্টারে এর অবস্থান। রাজকীয় আবহে পেট পুরে বিশ্বের সবচেয়ে দামি বিরিয়ানি খেতে পর্যটকরা সবসময়ই ভিড় জমান ‘বোম্বাই বরো’তে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Facebook Comments