বিনা অনুমতিতে ওমরাহ করলেই ২ লাখ টাকা জরিমানা!

ধর্ম ডেস্ক : মহামারি করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে কঠোর অবস্থান ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সৌদি আরব। এরই অংশ হিসেবে অনুমিত ছাড়া ওমরাহ করলেই ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা গুনতে হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। খবর আরব নিউজ।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে পবিত্র নগরী মক্কার মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফে জনসমাগম সীমিত করেছে। মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফে প্রবেশের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি নজরদানি আরোপ করেছে হারামাইন কর্তৃপক্ষ।

আইন অমান্য করে বিনা অনুমতিতে কেউ ওমরাহ করতে গেলে তাকে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা দিতে হবে। বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ নির্দেশনা জারি করে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রে আরও জানায়, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধের ব্যবস্থা অমান্য করলেই যে কাউকে জরিমানা করা হবে। শুধু মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফে বিনা অনুমতি প্রবেশ করলেই গুণতে হবে ১ হাজার রিয়াল তথা সাড়ে ২২ হাজার টাকা।

মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত এ ব্যবস্থাপনা ও নির্দেশনা কার্যকর থাকবে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই মসজিদ ও চারপাশের সড়কে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা মোতায়েন থাকবে।

মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফে নামাজ পড়া এবং ওমরাহ পালনের জন্য অবশ্যই মসজিদে হারাম কর্তৃক নির্ধারিত অ্যাপের মাধ্যমে অনুমতি নিতে হবে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে যে, ওমরাহ পালনকারী এবং নামাজে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তি টিকা নিয়েছেন এবং করোনাভাইরাসের আক্রমণ থেকে মুক্ত।

যারা মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফে ওমরাহ পালন করার এবং নামাজ পড়ার ইচ্ছা করবে, তারা প্রথমে ‘তাওয়াক্কালনা’ অ্যাপে করোনামুক্ত ও টিকা প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করবে। তারপর ই-তামারনা অ্যাপের মাধ্যমে মসজিদে হারামে প্রবেশের অনুমতি নিতে হবে।
গত সোমবার সৌদি হজ ও ওমরাগ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যারা দুই দফায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ টিকা নিয়েছেন; শুধু তারাই এই বছর ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবেন।

জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটার সূত্রানুসারে, গত বছরের ২ মার্চ প্রথম সংক্রমণ শনাক্তের পর বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সৌদি আরবে করোনাভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ৯৫ হাজার ৮৫৪ জন। ভাইরাস সংক্রমণে দেশটিতে মারা গেছে ৬ হাজার ৭২৮ জন।
বৃহস্পতিবার হজ ও ওমরাহ মন্ত্রক জানিয়েছে যে তথ্য ও কৃত্রিম গোয়েন্দা বিভাগের জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ওমরাহ ও তাওয়াক্কাল্লা অ্যাপ্লিকেশনগুলি তাদের আপডেট সংস্করণে চালু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, তথ্য ও কৃত্রিম গোয়েন্দা বিভাগের জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ওমরাহ ও তাওয়াক্কালনা অ্যাপ্লিকেশনের আপডেট সংস্করণে চালু করা হয়েছে।

Facebook Comments