মেকআপের মুন্সিয়ানায় কানিজ ফাতেমা আনমন

পরীক্ষার হল থেকে বেরিয়ে হাতে দাগাদাগি করে অংক কষা নতুন কোন গল্প না-ই হতে পারে; তবে সবার অলক্ষ্যে ঘরের এক কোনে বসে টিউটোরিয়াল দেখে দেখে স্কিনটোন বুঝে মেকআপের মুন্সিয়ানা অর্জন করা অবশ্যই শেষ বয়সে গিয়ে নাতি-পুতির কাছে গল্পের খোরাক হতে পারে!

মডেল – কায়েমি

এই ফিচার লেখার জন্যে যখন ব্রাশ-তুলির যুদ্ধে নামার ইতিহাস জানতে চাইলাম, ‘আই য়্যম কানিজ ফাতেমা আনমন, আয় য়্যম এইটিন’ টাইপ বেরসিক প্রত্যুত্তর পাওয়া গেল। গল্প যতই এগিয়েছে, চায়ের কাপে চুমুক দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হয়েছে।

ক্লাস ওয়ান থেকে শুরু করে একালের ইন্টার সেকেন্ড ইয়ার অব্দি ধাপে ধাপে বিপত্তি পেরিয়ে পুরোদস্তুর মেকআপ শিল্পী হয়ে ওঠার গল্প লিখতে গেলে হয়তো দিস্তে খানিক কাগজ লেগে যাবে; তবে সুদূর ইউএস থেকে এই বাংলায় মেকআপ ম্যাটেরিয়াল পৌছে দেয়ার জন্যে কানিজ আনমনের চাচীকে ধন্যবাদ দেয়া যেতেই পারে। সে সাথে সার্বক্ষনিক সমর্থনের জন্যেও কানিজের আম্মুকে হল ভর্তি ক্ল্যাপ না দিলে কম হয়ে যাবে।

গেল বছর কান্ট্রি লক ডাউন পিরিয়ডে আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃত কিংবা প্রশিক্ষনপ্রাপ্ত মেকআপ আর্টিস্টদের কাছে কানিজের প্রোফেশানাল ট্রেনিং এর শুরুটা হলেও এখন ‘মেকওভারস বাই আনমন’ পেজে হাতেখড়ি নিতে আসা মেকআপের ছাত্রীও সংখ্যা নেহাত কম না। সাউথ পয়েন্ট স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যয়নরত কানিজ ফাতেমা ভবিষ্যতে লন্ডন থেকে মেকআপের উপর উচ্চ শিক্ষা অর্জনের বিষয়ে আশাবাদী।

Facebook Comments