টিকা নিবন্ধনে সহায়তা দিচ্ছে জাগো ফাউন্ডেশন-উর্মি গ্রুপ

জাগো ফাউন্ডেশন এবং উর্মি গ্রুপের উদ্যোগে ‘সুরক্ষাতেই রক্ষা’ নামে করোনা ভ্যাকসিন বিষয়ে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান শুরু হয়েছে। এই কর্মসূচি চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এই উদ্যোগে দেশব্যাপী সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে সরকারি ভ্যাকসিন কর্মসূচিতে নিবন্ধন করতে সহায়তা দিচ্ছে ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ।

প্রতিষ্ঠান দুইটির পক্ষে জানানো হয়, চলমান করোনাভাইরাসন সঙ্কটের শুরু থেকেই উর্মি গ্রুপ ও জাগো ফাউন্ডেশন বেশ কয়েকটি সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনে জড়িত ছিল। তীব্র করোনা সঙ্কটকালে তারা হাজারো পরিবারকে খাদ্য প্রদানসহ মাস্ক বিতরণ কার্যক্রম চালিয়েছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকার দেশব্যাপী কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু করেছে। সরকারের এই প্রচেষ্টাতে একাত্মতা প্রকাশ করতেই জাগো ফাউন্ডেশন এবং উর্মি গ্রুপের ‘সুরক্ষাতেই রক্ষা’ নামের এই পদক্ষেপ। চল্লিশোর্ধ বয়সের সুবিধাবঞ্চিত যারা প্রযুক্তিতে বেশিরভাগে ক্ষেত্রে অভিজ্ঞ নয় এমন মনুষের ঘরে ঘরে গিয়ে স্বেচ্ছাসেবীরা নিবন্ধকরণের পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করছে।

আগারগাঁও বস্তির বাসিন্দা মিনাজুর রহমান এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘আমি আগে ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য নিবন্ধন করতে পারিনি। তাদের সহায়তায় এটি কয়েক মিনিটেই সম্পন্ন হয়েছে।’

পিরোজপুর জেলার আয়েশা বেগম আনন্দ প্রকাশ করে জানান, ভ্যাকসিন জন্য নিবন্ধন এর প্রক্রিয়াটি আমার বা পরিবারের কারো জানা ছিল না। স্বেচ্ছাসেবকরা এতো সহজেই নিবন্ধনের পুরো কাজটি উৎফুল্লতার সাথে করেছে এবং আমি আমার পরিবার নিয়ে এখন নিশ্চিন্ত।

জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক করভী রাকসান্দ বলেন, ‘সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠির অনেক লোক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সাইন আপ করা, তাদের কার্ড প্রিন্ট করা ইত্যাদি ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছেন। এই চ্যালেঞ্জগুলি আমলে নিয়ে আমরা ‘সুরক্ষাতেই রক্ষা’ নামে একটি ক্যাম্পেইন শুরু করেছি দেশ জুড়ে। প্রতিটি জেলায় ভ্যাকসিন দেয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করিছ আমরা। আমাদের তরুণ স্বেচ্ছাসেবীরা সত্যিই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

উর্মি গ্রুপের পরিচালক ফাহমিদা মাহফুজ এই বিষয়ে বলেন, ‘দেশের মানুষের সাহয্যে এগিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। আমাদের সরকারের ভ্যাকসিন কর্মসূচিটি সফল করে দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন পৌঁছে দেয়াই আমাদের উদ্দশ্য। আমাদের এই প্রচেষ্টা একটি ভালো ফলাফল আনবে বলেই আমি আশা রাখছি।’

মহামারী সময়কালে সতর্ক থাকা এবং ভ্যাকসিন দেয়া আমাদের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং উর্মি গ্রুপ, জাগো ফাউন্ডেশন এবং ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ এই ক্যাম্পেইনের প্রতি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে এবং সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য উৎসাহিত করছে।

Facebook Comments