মার্চ ৭, ২০২১

Latest News Before Everyone in Bangladesh

অভিষেকে অনন্য রেকর্ড নাটরাজনের

১ min read

স্পোর্টস ডেস্ক : মাসছয়েক আগে যদি বলা হতো, আগামী ছয় মাসের মধ্যে ভারতের হয়ে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই খেলবেন- তাহলে হয়তো খোদ নাটরাজনই বিশ্বাস করতেন না সেটা। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, নাটকীয়তায় ভরা অস্ট্রেলিয়া সফরে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই অভিষেক হয়েছে ভারতীয় দলের বাঁহাতি পেসার থাঙ্গারাসুই নাটরাজনের।

অপ্রত্যাশিত এ অভিষেক ম্যাচগুলো খেলার মধ্য দিয়ে অনন্য এক রেকর্ডও গড়ে ফেলেছেন ২৯ বছর বয়সী এ পেসার। ভারতের হয়ে এক সফরে তিন ফরম্যাটেই অভিষেক হওয়া প্রথম ক্রিকেটার নাটরাজন। শুধু তাই নয়, সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে তিন ফরম্যাটেই অভিষেক হওয়া ভারতীয় ক্রিকেটার এখন তিনি।

গত ২ ডিসেম্বর সিরিজের শেষ ম্যাচে ওয়ানডে অভিষেক হয় নাটরাজনের। সেদিন ৭০ রানে ২ উইকেট নেন তিনি। পরে ৪ ডিসেম্বর হয় টি-টোয়েন্টি অভিষেক। সেই ম্যাচে তার শিকার ৩ উইকেট, ৩০ রানের বিনিময়ে। সীমিত ওভারের দুই সিরিজে তার অভিষেক অনেকটা প্রত্যাশিতই ছিল।

কিন্তু সাদা পোশাকের টেস্ট ক্রিকেটে যে এখনই সুযোগ পেয়ে যাবেন তিনি, তা খোদ টিম ম্যানেজম্যান্টের পরিকল্পনায়ও ছিল না। কেননা টেস্ট স্কোয়াডে প্রাথমিকভাবে রাখা হয়নি তাকে। দলের নেট বোলার হিসেবে রেখে দেয়া হয়েছিল ভারতে। আর এ রেখে দেয়াটাই যেন শেষমেশ দারুণ সিদ্ধান্তে পরিণত হলো।

কেননা ইনজুরির মিছিলে একের পর এক পেসারকে হারানোর পর আজ (শুক্রবার) থেকে শুরু হওয়া সিরিজের চতুর্থ টেস্টে নাটরাজনকে অভিষেক করাতে পেরেছে ভারত। আর এর মাধ্যমেই মাত্র ৪৪ দিনের মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটের স্বাদ পেয়ে গেলেন তামিল নাড়ুর এ বাঁহাতি পেসার।

নাটরাজনের আগে ভারতের হয়ে সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া ক্রিকেটার ছিলেন ভুবনেশ্বর কুমার। তিনি ২০১২ সালের ২৫ ডিসেম্বর খেলেন নিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ। এর পাঁচদিন পর অভিষেক হয় টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে। পরে ২০১৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারিতে হয় টেস্ট অভিষেক।

ভারতের হয়ে সবচেয়ে কম সময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে অভিষেকের রেকর্ড গড়লেও, সবমিলিয়ে বেশ পেছনেই নাটরাজনের নাম। মূলত সেরা পাঁচেও নেই তার নাম। সবচেয়ে কম ১২ দিনের মধ্যে তিন ফরম্যাটের স্বাদ পেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের কলিন ইনগ্রাম। ২০১০ সালের বাংলাদেশের বিপক্ষে এ রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

এছাড়া পাকিস্তানের আইজাজ চিমা ১৫ দিন, দক্ষিণ আফ্রিকার কাইল অ্যাবট ১৬ দিন, নিউজিল্যান্ডের ডগ ব্রেসওয়েল ১৬ দিন ও জিম্বাবুয়ের চার্লটন শুমা ১৮ দিনের মধ্যে তিন ফরম্যাটেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন।

Facebook Comments