নদীর পাশে বৃক্ষরোপন করতে পারলে জলোচ্ছাসসহ নানা দুর্যোগকালীন সংকট কেটে যাবে

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : বেড়িবাঁধ রক্ষার্থে বেড়িবাঁধ সংলগ্ন বৃক্ষরোপন করতে হবে। নদীর পাশে বৃক্ষরোপন করতে পারলে জলোচ্ছাসসহ নানা দুর্যোগকালীন সংকট কেটে যাবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে আপদকালীন সময়ের জন্য অর্থের যোগান রাখতে হবে। বর্ষা মৌসুমীর আগে ক্ষতিগ্রস্থ বাঁধগুলো মেরামত করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধারা দেশের কাজে সব সময় ছিল, আমৃত্যু পর্যন্ত থাকবে। এভাবে বললেন ফ্রিডম ফাইটার্স ফোরামের বক্তারা ।
আজ শনিবার সকাল ১০টায় রাসটিক কার্যালয়ের সেমিনার কক্ষে বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাইটার্স ক্লাইমেট এ্যাকসন ফোরামের উদ্যোগে “জলবায়ু পরিবর্তন ও আমাদের করণীয়” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাইটার্স ক্লাইমেট এ্যাকসন ফোরামের আহবায়ক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোড়ল নূর মোহাম্মদ। সভায় প্রবন্ধের উপর আলোচনা করেন সাংবাদিক মহেন্দ্রনাথ সেন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সদস্য সচিব বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইবারত আলী, আমিনুল ইসরাম, শেখ আনোয়ারুল হক, মহিউদ্দিন মোড়ল, লিয়াকত আলী শেখ জাফর আহমেদ, আঃ ওয়াদুদ খান, মোঃ আলী আকবর , সাতক্ষীরা আশাশুনী উপজেলার মোঃ মোফাজ্জেল হোসেন, শেখ মিয়াবর, কয়রা উপজেলার আব্দুল হাকিম প্রমুখ। সরকার উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের কথা ভেবে অর্থ ব্যয় করছে। কিন্তু কিছু স্বার্থনেষীমহলের নিজ স্বার্থের করণে সেই অর্থ প্রকৃত কাজে ব্যয় হচ্ছে না। আমরা চাই সরকারের অর্থ যেন বেহাত না হয়। তাহলে মুক্তিযোদ্ধারা দুৃর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করে জনগণের সম্মুখে তাদের নাম প্রকাশ করবে।

Facebook Comments