বদলে গেলো কলকাতার অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক : আসর শুরুর আগে থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, বিশেষজ্ঞরাও মতামত দিচ্ছিলেন যে, কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) অধিনায়কত্বের দায়িত্বটা দিনেশ কার্তিক নয়, বরং ইয়ন মরগ্যানকে দেয়া উচিত। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে ঠিক মাঝামাঝি পর্যন্ত এ বিষয়ে ভাবেননি কার্তিক কিংবা কেকেআর কর্তৃপক্ষ।

তবে দলের অবস্থা যখন বেগতিক এবং নিজের ব্যাটিং পারফরম্যান্সও ছন্নছাড়া, তখন নিজ থেকে দায়িত্ব ছেড়ে দিলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কার্তিক; অধিনায়কত্ব সঁপে দিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যানের হাতে। কার্তিক জানিয়েছেন ব্যাটিংয়ে অধিক মনোযোগী হতেই মূলত এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

আজ (শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে চলতি আসরে কলকাতার অষ্টম ম্যাচ। এই ম্যাচ থেকেই শুরু হবে মরগ্যানের আইপিএল অধিনায়কত্ব যুগ। ম্যাচ শুরুর ঘণ্টাছয়েক আগে অধিনায়কত্ব বদলে ঘোষণাটি নিজেদের টুইটার প্রোফাইলে জানিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

বর্তমানে ৭ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরেই অবস্থান করছে কলকাতা। আজকের ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ মুম্বাই ইন্ডিয়ানস সমান সাত ম্যাচে জিতেছে ৫টিতে, অবস্থান দ্বিতীয়। মুম্বাইয়ের বিপক্ষে জয় পেলে অনেকটাই এগিয়ে যাবে কেকেআর। তবে হেরে গেলে বেশ কঠিন হয়ে যাবে তাদের সামনের যাত্রা।

আর বাকি ম্যাচগুলোতে ইতিবাচক ফলের জন্য নিজের ব্যাটিংটা খুব দরকার বলে মনে করছেন কার্তিক। যিনি এখনও পর্যন্ত সাত ম্যাচে করেছেন ১০৮ রান। যেখানে এক ম্যাচেই খেলেছিলেন ৫৮ রানের ইনিংস এবং বাকি ছয় ম্যাচে ছিলেন নিষ্প্রভ। তাই এখন ব্যাটিংয়ে আরও মনোযোগ দিতে অধিনায়কত্বের চাপটা সরিয়েছেন কার্তিক।

তবে হুট করে এমন সিদ্ধান্তে বিস্মিত হয়েছে কলকাতা ম্যানেজম্যান্টও। ফ্র্যাঞ্চাইজিটির প্রধান নির্বাহী ভেংকি মাইশর অবশ্য বাহবাও দিয়েছেন কার্তিককে। তার মতে, আইপিএলের মতো এতো বড় আসরে নিজ থেকে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিতে অনেক বেশি মনোবলের প্রয়োজন; যা দেখাতে পেরেছেন কার্তিক।

মাইশোর বলেছেন, ‘কার্তিকের মতো নেতা পেয়ে আমরা সত্যিই ভাগ্যবান, যে কি না সবসময় দলকে এগিয়ে রাখে। এমন একটা সিদ্ধান্ত নেয়া অনেক বড় সাহসিকতার ব্যাপার। এটি আমাদের আশ্চর্য্য করলেও, তার সিদ্ধান্তের প্রতি আমাদের পূর্ণ সম্মান রয়েছে।’

২০১৮ সালে ৭ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে প্রথমবারের মতো কলকাতায় এসেছিলেন কার্তিক। প্রথম আসর থেকেই তাকে অধিনায়কত্ব দিয়ে দেয় কেকেআর ম্যানেজম্যান্ট। তার নেতৃত্বে ২০১৮ সালের আসরে তৃতীয় এবং ২০১৯ সালের আসরে পঞ্চম হয়েছিল কলকাতা। এবার অর্ধেক পর্যন্ত অর্থাৎ সাত ম্যাচের ৪টি জিতেছে তারা।

এর বাইরে ব্যাট হাতে ১৪৬ স্ট্রাইকরেটে পাঁচ হাফসেঞ্চুরির সাহায্যে ৮৫৯ রান করেছেন কার্তিক। যদিও কলকাতায় কখনওই নির্দিষ্ট ব্যাটিং পজিশন নিয়ে খেলতে পারেননি তিনি।

Facebook Comments