ভারতের সাবেক বিশ্ব সুন্দরী হলেন রাজকন্যা

বিনোদন ডেস্ক : ছিলেন সাধারণ এক ছাত্রী। মেডিকেলে পড়ছিলেন ডাক্তার হবার স্বপ্ন নিয়ে। ২০১৭ সালটা বদলে দিলো তার পৃথিবীটা। সাধারণ থেকে অসাধারণ একজনে পরিণত হলেন তিনি বিশ্বসুন্দরীর মুকুট জয় করে। তিনি মানসী চিল্লার।

২০১৭ বিশ্বসুন্দরী নির্বাচিত হন এই ভারতীয় কন্যা। তখন থেকেই তাকে নিয়ে বলিউডের অনেক আগ্রহ।
অবশেষে দ্বাদশ শতাব্দীর এক জনপ্রিয় রাজকন্যা হয়ে সিনেমার ক্যারিয়ার শুরু করতে যাচ্ছেন তিনি। সেখানে তার বিপরীতে আছেন সুপারস্টার অক্ষয় কুমার।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো নিশ্চিত করেছে, অক্ষয়ের নতুন ছবি ‘পৃথ্বীরাজ’ -এ তার স্ত্রীর চরিত্রে দেখা যাবে মানসীকে। যিনি একজন রাজকন্যা ছিলেন। পরবর্তীতে রাজা পৃথ্বীরাজ তাকে বিয়ে করেন।

মানসী এরইমধ্যে সব প্রস্তুতি নিয়েছেন বলিউডে তার অভিষেক হতে যাওয়া ছবির শুটিং শুরু করতে। দ্বাদশ শতাব্দীর ঐতিহাসিক গল্পের এই সিনেমায় তাকে দেখা যাবে রাজকন্যা সংযুক্তার চরিত্রে। অক্ষয় কুমার আছেন নাম ভূমিকায়, পৃথ্বীরাজ চৌহানের চরিত্রে।

যশরাজ ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত ছবিটি পরিচালনা করছেন ড. চন্দ্রপ্রকাশ দ্বিভেদি। দ্বাদশ শতাব্দীতে পৃথ্বীরাজ চৌহানের বীরত্ব ও প্রেমের গল্প উঠে আসবে এখানে। তিনি সেসময় আজমির ও দিল্লি শাসন করেছিলেন। এমন কী যুদ্ধে তত্কালীন শক্তিশালী যোদ্ধা মোহাম্মদ ঘোরিকেও পরাজিত করেছিলেন পৃথ্বীরাজ চৌহান। তিনি ছিলেন দ্বাদশ শতাব্দীর অন্যতম শক্তিশালী একজন যোদ্ধা।

পৃথ্বীরাজ তুর্কি আক্রমণের বিরুদ্ধে ভারতের হিন্দু রাজাদের একতাবদ্ধ করেন। ১১৭৫ সালে তিনি কনৌজের রাজা জয়চন্দ্রের কন্যা সংযুক্তাকে অপহরণ করে বিয়ে করেন। যে ঘটনাটি ভারতে একটি জনপ্রিয় প্রেম উপাখ্যান হিসেবে প্রচলিত রয়েছে।

পৃথ্বীরাজ চৌহান ১১৯১ সালে তরাইনের প্রথম যুদ্ধে মুহাম্মাদ ঘুরিকে পরাজিত করেন। পরবর্তী বছর ঘুরি পুনরায় আক্রমণ করলে তরাইনের দ্বিতীয় যুদ্ধ সংঘটিত হয়। এই যুদ্ধে পৃথ্বীরাজ চৌহান পরাজিত ও বন্দী হয়ে পরবর্তীতে মৃত্যুবরণ করেন।

অক্ষয়-মানসীর পাশাপাশি ‘পৃথ্বীরাজ’ ছবিতে সোনু সুদও একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করবেন।

Facebook Comments