গরম পানি পান করলে কি ওজন কমে?

লাইফস্টাইল ডেস্ক : পানি পানের উপকারিতা কারও অজানা নয়। হালকা গরম পানি পান করলে যে অনেকরকম উপকার মেলে, একথাও সবার জানা। কিন্তু ঠান্ডা পানির বদলে গরম পানি পান করলে কি ওজন কমে? আমাদের শরীরের তাপমাত্রার চেয়ে কম তাপমাত্রার পানি পান করলে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য শরীরকে অনেক বেশি শক্তি ব্যয় করতে হয়। যে কারণে পুষ্টির ঘাটতি হতে শুরু করে। আর ওজন বৃদ্ধি বা স্থুলতা হলো সেই অপুষ্টির ফল।

প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পানের রয়েছে অসংখ্য উপকারিতা। শুধু পানি পানেও যে ওজন কমে যায় অনেকখানি, এটাও কিন্তু প্রমাণিত। বিশেষজ্ঞরা প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পানের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এতে করে অনেক অসুখ-বিসুখ থেকেও দূরে থাকা যায়।

গবেষণায় দেখা গেছে, যখন তৃষ্ণা পাবে তখনই হালকা গরম পানি পান করলে এক বছরের কম সময়ের মধ্যে ১২ কেজি পর্যন্ত ওজন ঝরে যায়। তাই পানি পান করে ওজন কমাতে চাইলে তৃষ্ণা পেলে পান করতে হবে হালকা গরম পানি।

আমাদের শরীরে ঠান্ডা ও গরম দুই ধরনের পানির রয়েছে আলাদা প্রভাব। গরমের সময়ে অনেকেই ফ্রিজের ঠান্ডা পানি অনেকখানি পান করে ফেলেন। এটি শরীরের জন্য উপকারের বদলে ক্ষতি করে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঠান্ডা খুব বেশি ঠান্ডা পানি পান করলে তা হজম শক্তি কমিয়ে দেয়। বদহজমের কারণে শরীরে মেদ জমতে থাকে দ্রুত। তাই সব সময় চেষ্টা করুন স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি পান করতে। আর ওজন কমানোর চেষ্টা করলে অবশ্যই হালকা গরম পানি।

গবেষণায় দেখা গেছে, খাওয়ার সময় ফ্রিজের ঠান্ডা পানি পান করলে খাবারে থাকা চর্বি পেটে গিয়ে কঠিন আকার ধারণ করে। যে কারণে দ্রুত জমা হতে থাকে চর্বি।

নিয়মিত হালকা গরম পানি পান করলে শরীরের সবকিছুই থাকে নিয়ন্ত্রণে। কিডনি তো ভালো থাকেই, ভালো রাখে হার্টও। ফলে রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক থাকে।

Facebook Comments