এফএও’র পরবর্তী আঞ্চলিক সম্মেলন আয়োজন করবে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) পরবর্তী ৩৬তম এশিয়া-প্যাসিফিক আঞ্চলিক সম্মেলন বাংলাদেশে আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

শুক্রবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী জানান, ভুটানে ভার্চুয়ালি চার দিনব্যাপী (১ থেকে ৪ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত ৩৫তম এশিয়া-প্যাসিফিক আঞ্চলিক সম্মেলনে সদস্যভুক্ত দেশগুলো পরের সম্মেলনটি বাংলাদেশে আয়োজনের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান, খাদ্য সচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম এবং এফএও’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি রবার্ট ডি সিম্পসন।

১৯৭৩ সালে এফএও-তে যোগ দেয়া বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ২০২২ সালে ৩৬তম এশিয়া-প্যাসিফিক সম্মেলন আয়োজন করবে জানিয়ে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এই সম্মেলন আয়োজনের বিষয়ে বাংলাদেশের প্রস্তাবের ওপর চীন, ভারত, ভুটান, ইরান, তিমুর, থাইল্যান্ড, ফিলিপিন্স ও কম্বোডিয়া সরাসরি সমর্থন দিয়েছে। এ ছাড়া সদস্যভুক্ত অন্যান্য দেশও তাতে সম্মতি দিয়েছে।

ঢাকায় ৩৬তম অধিবেশন এই অঞ্চলের দেশগুলোর অর্জন, সাফল্য, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন বিষয়ে মতবিনিময় ও পারস্পারিক সহযোগিতার নতুন দ্বার উন্মোচন করবে বলে আশা প্রকাশ করেন কৃষিমন্ত্রী।

মহামারী করোনার কারণে এবার এই সম্মেলন ভার্চুয়ালি হলেও ২০২২ সালে করোনা থাকবে না বলে আশা করছেন আব্দুর রাজ্জাক। বলেন, আমরা ভালোমতো এই সম্মেলন আয়োজন করতে পারব বলে আশা করছি।

কৃষিমন্ত্রী জানান, এবারের সম্মেলনে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪৬টি সদস্য দেশের মধ্যে ৪১টি দেশের মন্ত্রী, ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, বেসরকারি খাত, নাগরিক সমাজ, অ্যাকাডেমিয়া এবং খাদ্য ও কৃষিখাতের কারিগরি বিশেষজ্ঞসহ ৪ শতাধিক প্রতিনিধি অংশ নেন। আর মন্ত্রী পর্যায়ের অধিবেশনে ৩১ জন মন্ত্রী ও ২৮ জন ভাইস মিনিস্টার অংশ নেন।

Facebook Comments