সুখবর পেলেন নিউইয়র্কের ভাড়াটিয়ারা

প্রবাস ডেস্ক : নিউইয়র্কের ভাড়াটিয়াদের জন্য বিশেষ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। করোনাকালীন কোনো বাড়িওয়ালা যাতে ভাড়াটিয়াদের উচ্ছেদ করতে না পারেন, সেজন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই সুবিধা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে।

এরপরও সময় বাড়ানো হতে পারে। প্রেসিডেন্ট বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়াদের সুবিধা দেওয়ার জন্য বিশেষ সহায়তার ব্যবস্থা করেছেন। এখনও এর সুফল মানুষ পেতে শুরু করেনি। তবে ভাড়াটিয়াদের শঙ্কা কাটছে না। কারণ মানুষের হাতে তেমন অর্থ নেই। অনেক মানুষ ভাড়া দিতে পারছে না। করোনাকালীন যারা আন-এমপ্লয়মেন্টের সুবিধার সাথে সাথে প্রতি সপ্তাহে ৬০০ ডলার করে প্যান্ডামিকের সুবিধা পেয়েছেন, তারা অনেকেই বাড়ির মালিককে ভাড়া দিতে পেরেছেন।

জানা গেছে, এখনও যারা কাজে ফিরতে পারেননি কিংবা পার্টটাইম করছেন, তারা যে অর্থ পাচ্ছেন সেই অর্থ দিয়ে ভাড়া পরিশোধ করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। আন-এপ্লয়মেন্টে সর্বোচ্চ কোনো লোক সপ্তাহে ৫০০ ডলার পেতে পারেন। ট্যাক্স কাটার পর তা আরও কমবে। সেই হিসেবে সপ্তাহের অন্যান্য খরচ তাদের বহন করতেই অর্থ চলে যাচ্ছে। আবার অনেকেই পাচ্ছেন ১০০ থেকে ২৫০ কিংবা ৩০০ ডলার। তাদের পক্ষে বাড়িভাড়া বহন করা সম্ভব হচ্ছে না। সংসারের অন্যান্য খরচ চালাতে গিয়ে তারা নিদারুণ কষ্টে রয়েছেন।

অন্যদিকে যারা এখনও কাজে ফিরতে পারেননি তারা রয়েছেন চরম সংকটে। এ অবস্থার আরও অবনতি হতে পারে, যদি করোনায় সহায়তা না মেলে। যদিও নিউইয়র্ক স্টেট ওয়েজেজ লস্ট করোনা সহায়তায় সপ্তাহে বেকারপ্রতি ৩০০ ডলারের জন্য আবেদন করেছিল এবং অনুমোদন হয়েছে। এখন সেটি কবে নাগাদ দেওয়া হবে, সে ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি।

এর আগে বলা হয়েছিল, ৩০০ ডলার করে ২৯ আগস্ট থেকে দেওয়া হতে পারে। কিন্তু ৩০০ ডলার পেলেও মানুষের সমস্যা কাটবে না। কারণ করোনায় ৩০০ ডলার করে মাসে ১২০০ ডলার পেলে এবং এর সঙ্গে আন-এমপ্লয়মেন্টের সুবিধা পেলে যে অর্থ আসবে তাতে বেশির ভাগ ভাড়াটিয়ার পক্ষে ভাড়া দেওয়া সম্ভব হবে না। এই অবস্থায় বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়াদের মধ্যে আগামীতে দ্বন্দ্ব-বিবাদ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এছাড়া কোনো কোনো বাড়িওয়ালা ভাড়াটিয়াদের ইভকশন করার চেষ্টা করতে পারেন। সেটা যাতে না হয়, সেজন্য ডিপার্টমেন্ট অব হাউজিং অ্যান্ড রিনিওয়াল থেকে ভাড়াটিয়াদের সমস্যা হলে ৯১১-এ ফোন করার জন্য পরামর্শ দিয়েছে। বলা হয়েছে সমস্যা হলে ৯১১-এ কল করে রিপোর্ট করুন।

বর্তমানে কোনো ভাড়া স্থগিত কার্যকর নয়। বাড়িওয়ালারা এখনও নির্ধারিত ভাড়া আদায় করতে পারেন এবং যদি ভাড়াটিয়ারা ভাড়া প্রদান করতে পারেন, তবে তাদের এটি চালিয়ে যাওয়া উচিত।

মার্চ থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মালিকেরা দেরি বা মিস পেমেন্টের জন্য ফি নিতে পারবেন না। যদি কেউ কোভিড সম্পর্কিত ঝামেলার মুখোমুখি হন, তবে সুরক্ষা আমানত অর্থ প্রদান হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন এবং সময়ের সাথে আমানত শোধ করতে পারেন। যদি কোনো ভাড়াটিয়ার ভাড়া প্রদানে সহায়তা প্রয়োজন হয়, তবে তিনি আর্থিক সহায়তার জন্য যোগ্য হতে পারেন।

নিউইয়র্কের ভাড়াটিয়াদের জন্য বিশেষ সুবিধাগুলো নিম্নরূপ-

চলমান নগদ সহায়তা: ভাড়া প্রদান বা অন্যান্য ব্যয় মেটাতে যদি আপনার চলমান আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন হয়, তাহলে নগদ সহায়তার জন্য আবেদন করার সুযোগ রয়েছে।

করোনা ভাড়া ত্রাণ প্রোগ্রাম: নিউইয়র্ক রাজ্য কোভিড ভাড়া ত্রাণ প্রোগ্রামের আবেদন এখন বন্ধ রয়েছে। ২০২০ সালের ৬ আগস্ট বা তার আগে পোস্টমার্কসহ অনলাইনে এবং মেইলে আবেদন করা হয়। কর্মসূচিতে যোগ্য পরিবারগুলোকে চার মাস পর্যন্ত ভাড়া সহায়তা প্রদানের জন্য এককালীন ভাড়া ভর্তুকি সরবরাহ করা হয়। অনুদানটি সরাসরি বাড়িওয়ালাকে পেছনের ভাড়া বা ভবিষ্যতের ভাড়া প্রদানের জন্য দেওয়া হত এবং ভাড়াটে তাকে শোধ করার প্রয়োজন হয়নি।

কোভিড-১৯ জরুরি সময়কালে আবাসিক ভাড়াটে সম্পর্কে যদি প্রশ্ন থাকে বা ভাড়াটে হয়রানির শিকার হন, তবে মেয়রের অফিস টু প্রটেক্ট টেন্যান্টস (এমওপিটি) হেল্পলাইন শহর সরবরাহের মাধ্যমে তথ্য সরবরাহ করতে পারে, সুবিধা পেতে সহায়তা করতে পারে এবং বিনা খরচে আইনি সহায়তা পেতে পারে টেন্যান্ট হেল্পলাইনের মাধ্যমে সিভিল জাস্টিসের অফিস। সহায়তার জন্য ৩১১ কল করুন।

যদি আপনার সময় কর্মক্ষেত্রে কাটা হয় বা আপনি যদি চাকরি হারিয়ে থাকেন তবে আপনি একটি অন্তর্বর্তীকালীন পুনরুদ্ধারকরণ শেষ করে আপনার ভাড়া কমিয়ে আনতে পারেন। পাবলিক হাউজিংয়ের বাসিন্দাদের জন্য ভাড়া সর্বদা পরিবারের আয়ের ৩০ শতাংশ হবে। যদি এখন আপনার কোনো আয় না হয়, তবে আপনার ভাড়া শূন্য হবে।

প্রবীণ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা রেন্ট ফ্রিজ করতে পারেন। এনওয়াইসি রেন্ট ফ্রিজ প্রোগ্রামযোগ্য সিনিয়রদের ৬২ বা তার বেশি বয়সী এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা যারা ভাড়া নিয়ন্ত্রিত অ্যাপার্টমেন্টগুলোতে ভাড়া দেন এবং তাদের মাসিক আয়ের ৩০ শতাংশের চেয়ে বেশি ভাড়া স্থির করে এবং বেশির ভাগ ভবিষ্যতের বৃদ্ধি রোধ করে।

ল্যান্ডলর্ড-টেন্যান্ট মধ্যস্থতা প্রকল্পটি একটি বিনা খরচে গোপনীয় কর্মসূচি, যা আবাস-সম্পর্কিত সমস্যা সমাধানের জন্য উপলব্ধ, যা কোভিড-১৯-এর কারণে উদ্ভূত হয়েছে। প্রশিক্ষিত, নিরপেক্ষ মধ্যস্থতাকারীরা ভাড়াটে এবং বাড়ির মালিকদের সহায়তা করতে পারে। মধ্যস্থতা একটি ভালো বিকল্প হতে পারে, যদি আপনি আদালতে যাওয়ার চেয়ে বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে চান।

নিউইয়র্ক স্টেটে আদালতের আদেশক্রমে ২০২০ সালের ১ অক্টোবর পর্যন্ত কোনো উচ্ছেদ নেওয়া যাবে না। এর বাইরে একটি নতুন রাজ্য আইনের অধীনে আপনি যদি মার্চ ৭, ২০২০ এর মধ্যে যেকোনো সময় আর্থিক সংকট ভোগ করেন এবং এই অঞ্চলে সমস্ত সুরক্ষা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে, তবে আপনাকে প্রথমে ভাড়া পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ার কারণে সেই সময়কালে উচ্ছেদ করা হবে না।

আপনি যদি তাৎক্ষণিক আবাসন সংকটে পড়ে থাকেন বা উচ্ছেদের প্রতিরোধ পরিষেবাদির প্রয়োজন হয়, তবে উচ্ছেদের প্রতিরোধ এবং হোমবেজ দেখেও সহায়তা নিতে পারেন।

ভাড়াটে হয়রানির মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে: ইজারা নবায়নের প্রস্তাব দিচ্ছে না, বারবার বাইরে যাওয়ার জন্য আপনাকে অর্থ প্রদানের চেষ্টা কর, বেআইনিভাবে উচ্ছেদ নোটিশ বা অবৈধ লকআউট, হুমকি এবং ভয় দেখানো, যেমন গভীর রাতে ফোন কল, ভাড়া-নিয়ন্ত্রিত অ্যাপার্টমেন্টের জন্য অতিরিক্ত চার্জিং, আপনি যদি নিউইয়র্ক সিটির কোনো অ্যাপার্টমেন্টে ভাড়াটে হন, যিনি আপনার বাড়িওয়ালা দ্বারা হয়রানির শিকার হন, তবে মেয়র অফিস টু প্রটেক্ট টেন্যান্টস (এমওপিটি) হেল্পলাইন তথ্য প্রদান করতে পারে, সুবিধা পেতে সহায়তা করতে পারে এবং বিনা খরচে আইনি পরামর্শ পেতে পারে।

Facebook Comments