করোনায় প্রাণহানি ছাড়াল ৭ লাখ, প্রতি ঘণ্টায় ২৪৭ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে প্রাণহানির সংখ্যা সাত লাখ ছাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু সাত লাখ ছাড়িয়েছে বুধবার। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত এবং মেক্সিকোতে করোনায় প্রাণহানি ক্রমেই বাড়ছে।

গত দুই সপ্তাহের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে এই সময়ে মধ্যে প্রত্যেকদিন গড়ে প্রায় ৫ হাজার ৯০০ জন করে মারা গেছেন। রয়টার্সের হিসেবে বিশ্বে প্রতি ঘণ্টায় ২৪৭ জন অথবা প্রতি ১৫ সেকেন্ডে একজন করে করোনার কাছে হেরে গেছেন।

বিশ্বজুড়ে করোনায় সংক্রমণ এবং মৃত্যু বাড়লেও এই ভাইরাসের নতুন কেন্দ্র হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং লাতিন আমেরিকা। করোনাভাইরাসের বিস্তারের লাগাম টানতে কঠিন লড়াই করতে হচ্ছে তাদের। যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ লাখ ৭৭ হাজারের বেশি মানুষ। দেশটিতে করোনায় প্রাণ গেছে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৮০০ জনের বেশি মানুষের।

রয়টার্স বলছে, বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যুতে ইউরোপকে ছাড়িয়ে গেছে লাতিন আমেরিকা। করোনায় এই অঞ্চলে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে; যা বিশ্বের মোট মৃত্যুর প্রায় ৩০ শতাংশ।

লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ব্রাজিল। মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশটিতে ৯৫ হাজার ৮১৯ জনের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস। ব্রাজিলে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ লাখ ছাড়িয়েছে।

৪৮ হাজার ৮৬৯ জনের প্রাণহানি নিয়ে এই অঞ্চলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড মেক্সিকোর। এছাড়াও লাতিন আমেরিকার কলম্বিয়া, পেরু, আর্জেন্টিনা এবং বলিভিয়ায় করোনা মহামারির বিস্তার দ্রুতগতিতে ঘটছে। করোনায় মৃত্যুতে বিশ্বে চতুর্থ স্থানে আছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৬ হাজার ২৯৫ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হলেও দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮ হাজার ২০৬ জন। তাদের মধ্যে ৮১ হাজার ২০০ জন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৭৬ জন।

চীনের প্রতিবেশি ভারতে করোনার ব্যাপক প্রকোপ শুরু হয়েছে। দেশটিতে সোমবার রেকর্ড ৮০৩ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা; যা ওইদিন বিশ্বে ২৪ ঘণ্টায় একক কোনও দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু ছিল। ভারতে ১৯ লাখ ৮ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন; তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৩৯ হাজার ৮২০ জন।

Facebook Comments