মার্চ ৯, ২০২১

Latest News Before Everyone in Bangladesh

কালোকেশির কথামালা

১ min read

? ছোটবেলায় আমরা সবাই কম বেশি রান্নাবাটি খেলেছি।তখন আমরা আমাদের আশে পাশে জন্মানো যে ঘাস লতাপাতা দিয়ে খেলতাম তার মধ্যে একটি ঘাস ফুল গাছ হলো কেশরাজ/ কালোকেশি। কিন্তু এই গাছ যে এত্ত উপকারী তা ছোটবেলায় জানতাম না।

আমরা নারী পুরুষ সবাই কম বেশি মাথার চুল নিয়ে চিন্তিত থাকি। আর চুলের যত্নে প্রাচীনকাল থেকে এই উপমহাদেশে যে ভেষজ টি ব্যবহার হয়ে আসছে তার নাম হলো কেশরাজ বা কালোকেশি। এটি সাধারণত আমাদের দেশের সর্বত্রই দেখা যায়। বিশেষ করে বাড়ির আশে-পাশে পরিত্যক্ত জমিতে, খেত-খামারে/ জমির আইলের মাঝে, পুকুর পাড়ে নিশ্চিন্তে বেড়ে ওঠে।

কালোকেশি /কেশরাজ বৃত্তান্ত:

কেশরাজ এর অনেক গুলো নাম রয়েছে।
কেশড়ে, কানাহুলি, কালকশি, কেশতি, কোশুতি, খেতুয়া, মইরচর, ভৃঙ্গরাজ এই রকম প্রভৃতি নামে পরিচিত। ছোটবেলায় অবশ্য কালাকাইচ্ছা নামেই চিনতাম।
এর ইংরেজি নাম: False daisy. বৈজ্ঞানিক নাম: Eclipta prostrata.

গাছের বর্ণনা: কেশরাজ বর্ষজীবী গুল্ম জাতীয় উদ্ভিদ। শাখা লতানো। শাখা থেকে প্রশাখা বের হয়। শাখা বা প্রশাখা বের হয় বিপরীতভাবে। লম্বায় ৫০ থেকে ৬০ সে.মি হয়। এর পাতা খুবই ছোট, গাঢ় সবুজ রঙের।লম্বায় ৪ থেকে ৫ সে.মি পাতার কোল থেকে প্রশাখা বের হয়। এই প্রশাখার শেষ প্রান্তে ২/৩ টি ফুল ফোটে। ফুল সাদা। ফুল থেকে ফল হয়। ফল গাঢ় সবুজ। ফলের ভেতর অতি ক্ষুদ্র বীজ।

উপকারীতা : কেশরাজ উদ্ভিদের উপকারিতা হিসাবে পাতা, কাণ্ড, ফুল ও ফল ব্যবহার করা হয়।

? অনেকেই কেশরাজকে শাক হিসেবে রান্না করে খায়। সুস্বাদু ভর্তা হিসেবে এর ব্যাপক গ্রহনযোগ্যতা রয়েছে। পেটের পীড়ায় কেশরাজ শাক বা ভর্তা বেশ উপকারি বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

? চুল পড়া বন্ধ, নতুন চুল গজানো, চুলের গোড়া শক্ত, চুল কালো প্রভৃতি গুনাগুনের জন্য এটার তেল বা অন্য তেলের উপাদান হিসাবে এর নির্যাস ব্যবহৃত হয়। কেশরাজের কাঁচা পাতা বেটে রস তৈরী করে চুলে লাগাতে হবে, এরপর মিশ্রণ চুলে শুকিয়ে আসলে, পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।
এছাড়া ২৫০ গ্রাম তিল/ নারিকেল তেলের সাথে ১ কাপ কেশরাজের পাতার রস, ১টি আমলকি,১টি জবাফুল ও ১ চা চামচ মেথী দানা একসংগে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিয়ে ঠান্ডা করে পরিষ্কার কাপড় দিয়ে ছেকে কাঁচের বোতলে সংগ্রহ করে রাখা যায়। তৈরীকৃত মিশ্রণটি মাথায় মালিশ করতে হবে। উকুন হলেও এই মিশ্রণ খুব কাজে দেয়।

? কেশরাজ পরিবেশে কোনও প্রতিকূল প্রভাব ছাড়াই মশার লার্ভা প্রসারণ নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। দু চা চামচ কেশরাজ এর কাঁচা রস ৫০০ এম এল পানির সাথে মিশিয়ে আপনার ঘরের ভিতর/বাহিরে স্প্রে করে মশার আক্রমন হতে রক্ষা পাওয়া যাবে।

? শরীরের কেটে যাওয়া স্থানে কেশরাজের পাতা বেটে পেস্ট বানিয়ে লাগালে সঙ্গে সঙ্গে রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায় এবং ধীরে ধীরে কাটা স্থানের ক্ষত শুকিয়ে যায়।

?  শহরে এই গাছ এখন দেখা যায় না বললেই চলে। চাইলে টবেও এই গাছ চাষ করা যায়।

Facebook Comments