পরিবর্তন

” কিরে আতিয়া তোর এত পরিবর্তন! যে মেয়ে টাইট পোশাক ছাড়া কিছু পড়তো না,ছেলেদের শরীর না দেখালে যে মেয়ে মজা পেত না সে আজ নিকাবী! এত পরিবর্তন কীভাবে হলো তোর?”
দুইবছর পর আতিয়াকে দেখে অবাক হয়েই কথাগুলো বললো শর্মি।

শর্মি আর আতিয়া একইসাথে কলেজে পড়তো। শর্মি রক্ষণশীল ভাবে চললেও আতিয়া বরাবর ওয়েস্টার্ন ড্রেস পড়েই কলেজে যাওয়া আসা করতো। এ নিয়ে অনেক ছেলে আতিয়াকে টিজ করলেও আতিয়া বলতো সে নাকি এসব শুনে মজা পেত।
শর্মি অনেক চেষ্টা করেও আতিয়াকে বোঝাতে পারেনি।
কিন্তু এতদিন পর আতিয়ার পোশাক আশাকে এত পরিবর্তন দেখে চমকেই গেছিল শর্মি।
শর্মির কথাশুনে আতিয়া শর্মির দিকে তাকিয়ে বললো,
– এখন বুঝিরে জীবনের আসল মানে। এতদিন আমি ভুলপথে চলতাম কিন্তু হঠাৎই আমার জীবনে পরিবর্তন হয়ে গেল।
-আমিওতো তাই ভাবছি।
– অনেক পাপ করে ফেলেছিরে। তুই অনেক বোঝানোর পরেও আমি তোর কথা শুনিনি।
– তা কীভাবে হলো তোর এই পরিবর্তন?
– বলছি তাহলে শোন।

” ভার্সিটিতে উঠেই তামজিদ নামের একজনের সাথে আমি রিলেশনে জড়ায়। তামজিদ শুরুর দিকে আমার অনেক কেয়ার করতো। একদিন হঠাৎ তামজিদ শারীরিক সম্পর্কে জড়াতে চাইলে আমি তাকে না করিনি। কিন্তু তামজিদ সেদিনের পর থেকে প্রতিনিয়ত এ সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিল। মাসখানেক পর আমি জানতে পারি আমি প্রেগন্যান্ট। তামজিদকে এ কথা জানালে সে আমাকে অস্বীকার করে আর সবার সামনে বেইজ্জতি করে। আমি লজ্জায় অপমানে সেখান থেকে চলে আসি। বাসায় এসে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করলে বাবা তা দেখে আমাকে বাঁচায়। এরপর ৩দিন বাবা-মা কেউই আমার সাথে কথা বলেননি। ৩ দিন পর মা এসে জিজ্ঞাসা করলে আমি তাকে সব বলে দিই। পরেরদিন হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে আমার এবরশন করানো হয়।
এর কিছুদিন পরেই বাবা আমাকে কিছু ইসলামিক বই এনে দেন। আমি সেগুলো পড়তে থাকি। আর বুঝতে পারলাম এতদিন আমি কী ভুল করেছিলাম। আমি আমার সব ভুলের জন্য আল্লাহ তায়ালার দরবারে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। এভাবে কয়েকদিন পর একজন হাফেজা রেখে আমাকে কুরআন পড়ানো শুরু করা হয়। পুরো কুরআন খতম শেষ হওয়ার পর বুঝলাম জীবনের আসল মানেটা কী। আসলেই আল্লাহ তায়ালা আমাদের অনেক নিয়ামত দিয়েছেন কিন্তু আমরা তা উপেক্ষা করি।”
– যাই হোক বুঝলি তো বুঝলি। অনেক দেরি করেই বুঝলি।
– হুমরে। আল্লাহ তায়ালার রহমতে নতুনভাবে জীবনের মানেটা বুঝেছি।

[আমাদের চারপাশেও এমন অনেক বোন আছেন যারা আল্লাহর আদেশ অমান্য করেই হারাম সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ছেন। বোনরে আল্লাহর বিধান অনুযায়ী জীবন গড়ুন আল্লাহ নিশ্চয়ই আপনাকে এর প্রতিদান দিবেন]

ফরাজ ফারদিন সাকিব

এইচএসসি পরীক্ষার্থী

নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজ, রাজশাহী

Facebook Comments