আউটপাসের কোনো ঘোষণা দেয়নি ওমান

প্রবাস ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে বৈধ-অবৈধ মিলে প্রায় দশ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশির বসবাস। মহামারি করোনা আতঙ্কের মাঝে কর্মহীন প্রবাসীরা প্রায় দিশেহারা।

এমন অবস্থায় কিছু প্রতারক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বহু প্রত্যাশিত সাধারণ ক্ষমা (আউটপাস) নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে।

ওমান প্রবাসীদের জন্য অনলাইন চিকিৎসা সেবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সরওয়ার বলেন, ‘দূতাবাসের হাতে যদি আউটপাস দেয়ার ক্ষমতা থাকত, তাহলে অনেক আগেই বিপদগ্রস্তদের দেশে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতাম’।

তিনি বলেন, অনেকেই মনে করেন আউটপাস দূতাবাসের হাতে। আসলে এটি ওমানের সুলতানের হাতে। ওমান সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে এটি যখন ঘোষণা আসবে, তখন দেশে যাওয়ার সুযোগ পাবে। দূতাবাস থেকে সবধরনের সহায়তা করা হবে। এই মুহূর্তে আউটপাসের বিষয়টি তাদের হাতে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা ওমান সরকারের সাথে নিয়মিত আলোচনা করছি এবং এখানে আমাদের প্রচুর সংখ্যক লোক অনেক কষ্ট করছে এটি তাদেরকে জানিয়েছি। যারা এই মুহূর্তে আউটপাসের জন্য অনেক কষ্ট করছেন, তাদেরকে অনুরোধ করব করোনার সময়টুকু অপেক্ষা করেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এবং বিমান চলাচল স্বাভাবিক হলে হয়তো সুলতান এ বিষয়ে একটা পদক্ষেপ নেবেন’।

এ বিষয়ে এক প্রবাসী বলেন, বৈধ কাগজ না থাকায় ওমান থেকে কয়েক হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি দেশে যেতে পারছে না। এমনকি পরিবার-পরিজনের কেউ মারা গেলেও শেষবারের মতো প্রিয়জনের মুখটি পর্যন্ত দেখতে পারছে না। ওমান সরকারের কাছে অনুরোধ রইলো মানবিক দিক বিবেচনা করে শিগগিরই আটপাশের ব্যবস্থা করা হোক।

সম্প্রতি দূতাবাসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওমান প্রবাসী সকল ভাই-বোনদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে, ওমান সরকার ‘আউট পাসের’ কোনো ঘোষণা করেনি। সুতরাং এ সংক্রান্ত কোনো বিষয় কারও মাধ্যমে আপনারা বিভ্রান্তি হবে না। আউড পাস সংক্রান্ত কোনো ঘোষণা আসলে দূতাবাস আপনাদের অবগত করবে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com