গরমে ঘর ঠান্ডা রাখতে যা করবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক : গরম বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। এসি সবার বাসায় থাকে না। আবার সারাক্ষণ এসিতে থাকাও স্বাস্থ্যকর নয়। কিন্তু শুধু ফ্যানের বাতাসে তো গরমকে কাবু করা যাচ্ছে না! দরদর করে ঘামতে ঘামতে নতুন কোনো উপায়ও খুঁজে পাচ্ছেন না গরম থেকে বাঁচার। কিছু উপায় অবশ্য রয়েছে। যা বেছে নিলে এই গরমেও আপনার আবাসস্থল কিছুটা শীতল হতে পারে। চলুন জেনে নেয়া যাক, কোন ঘরোয়া উপায়গুলো এ কাজে আপনাকে সাহায্য করবে-

ন্যাচারাল ভেন্টিলেশন: আপনার বাড়ির যে অংশটি দিয়ে সবচেয়ে বেশি বাতাস চলাচল হয়, সেই পাশের জানালাগুলো খোলা রাখতে পারেন, তাহলে সূর্যাস্তের পরে আপনার ঘর বাতাসে পরিপূর্ণ হবে।

সাদা রঙের চাদর: গরমে ঘর শীতল রাখতে চাইলে এই পদ্ধতি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। সাদা বা হালকা রংয়ের সুতির কাপড় বিছানার চাদর হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। বিছানার চাদর মোটা হলে ঘাম বেশি হয়। সাদা ও হালকা রঙের উপাদান তাপ শোষণ করে না, বরং প্রতিফলিত করে।

ঘরের চারপাশে গাছ লাগান: যদি সম্ভব হয়, ঘরের চারপাশে গাছ লাগাতে পারেন। ছায়া দিতে পারে এমন গাছ পূর্ব-পশ্চিম অনুযায়ী লাগান, আপনার বাড়িতে সরাসরি সূর্যের তাপ ঢুকতে বাধা পাবে। ঘরের চারপাশে ঘাসজাতীয় গাছ থাকলে ঘর ঠান্ডা থাকে। যাদের বাসা বহুতল ভবনে, তাদের পক্ষে এভাবে সম্ভব নয়। তারা ঘরেই কিছু গাছ রাখতে পারেন।

সাদা ছাদ: সাদা রঙ তাপ শোষণ করে না, বরং প্রতিফলিত করে। তাই সাদা রঙ সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মিকে প্রতিফলিত করবে এবং আপনার বাড়িকে প্রাকৃতিকভাবে শীতল রাখবে। সুতরাং আপনার বাড়ির ছাদ এবং টেরেস অঞ্চলগুলি সাদা রঙ করে নিতে পারেন।

বরফ: এক বাটি বরফ নিয়ে তা ফ্যানের সামনে বা নিচে রাখুন, তারপর ফ্যান চালান। কিছুক্ষণ পর যখন বরফগুলো গলতে শুরু করবে, তখন বাতাস ওই ঠান্ডা পানি শোষণ করবে এবং চারিদিকে ছড়িয়ে দেবে। ফলে, বরফের জন্য ফ্যানের বাতাস ঠান্ডা হবে এবং সারা ঘরে ঠান্ডা বাতাস ছড়াবে।

Facebook Comments