ক্রিম মাখলেই বাচ্চা হবে, ট্যারা চোখ সোজা হবে – সাবু শপ

নিউমার্কেট কিংবা কিংবা চকবাজারের বিক্রেতারাও যেখানে উৎসবের মৌসুম ছাড়া ভিন্ন সময়ে প্রোডাক্ট বিক্রী করতে হাপিত্যেশ করতে হয়, সেখানে ফেসবুক পেইজ থেকে মাত্র ঘন্টাখানিকের লাইভে এসে ধুন্ধুরমার সেল করে একেবারে চোখে তাক লাগিয়ে দেয়া অনলাইন বিজনেস প্ল্যাটফর্মগুলোর মধ্যে ‘সাবু শপ’ অন্যতম। মানে বেপারটা এমন যে, “কেউ মাছি তাড়িয়ে কূল পাচ্ছে না, আর কেউবা মানুষ তাড়িয়ে কূল পাচ্ছে না” অবস্থা! এমন উপচে পড়া ভিড় ঠেলে একটু ভেতরে যেতেই ফার্মগেটের হকারদের হাকাহাকি শুনতে পাওয়া গেল, ভুল শোনা গেল কিনা দ্বিধা কাটাতে কান চুলকে আর চোখ কচলে আরেকবার নজর দিতেই চোখ ছানাবড়া হয়ে গেল, আর কানে তালা লেগে গেল!

হবেই বা না কেন, আর কানা তালা লাগবেই বা না কেন; শত শত কাস্টোমারের ঠেলা সামলাতে ‘সাবু শপ’ ও’নার সাবরিনা খাতুন সাবু রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন। বেচারার জন্যে একটু মায়াই হল বৈকি। বুক ভর্তি আশা নিয়েই অগ্রসর হলাম, এমন জম্পেশ সেলারের একটা প্রতিবেদন করতে পারলে রাতারাতি হিট হয়ে যেতে পারি বৈকি! কিন্তু সে আশায় গুড়ে বালি লেগে গেল, যখন নিজ কানে শুনতে পেলাম, “এই ক্রিম মাখলে দুই মিনিটে ট্যারা চোখ সোজা হয়ে যাবে।“

ছোট বেলায় বিজ্ঞান, সমাজ, অংক, দর্শন, অর্থনীতি; পড়ালেখার যে শাখাতেই যেতাম না কেন, দেখতাম ‘গ্রীক দার্শনিক এরিস্টটল’ অমুক বলেছেন, তমুক বলেছেন! হিউম্যান বডি অল টাইপস অফ কেয়ারের জগতে নিশ্চিত ভাবেই সাবরিনা খাতুনকে এরিস্টটলের পর্যায়ে রাখা যেতে পারে, যদি খেয়াল করে ‘সাবু শপ’এর লাইভ গুলো দেখে থাকেন।

যেখানে দেশ বিদেশের বাঘা বাঘা ডাক্তাররাও ফেল মেরে যায় একজন নারীকে মাতৃত্বের স্বয়ং সম্পূর্নতা দিতে, সেখানে সোয়া লক্ষাধিক ফ্যান সমৃদ্ধ এই পেইজটিতে সরবরাহ করা হচ্ছে ‘মাতৃত্বের নিশ্চয়তা’ প্রদানকারী ক্রিমের তথ্য। সাবরিনা এখানেই থেমে থাকেননি। তার ভাষ্যমতে থেরাপি হিসেবে আখ্যায়িত সেই বিশেষ ক্রিমে নাকি প্যারালাইজড রোগীও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তবে সম্পূর্ন কালো মানুষকে ধবধবে ফর্সা করে দেওয়ার নিশ্চয়তা দেয়া সাবু শপটি সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক আগে থেকেই আলোচনা সমালোচনায় থাকলেও ইদানিং তিনি কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসেন যখন দেশের খ্যাতনামা তরুন অভিনেত্রী ‘সাবিলা নূর’কে ‘কালা’ বলে সম্মোধন করেন। এবং এরপর থেকেই একের পর এক তার অসাধারন কেরামতি সম্পন্ন ক্রিমের বিজ্ঞাপন প্রসার লাভ করে। ক্রমশই প্রসারিত হতে থাকা বিতর্কিত এই বিষয়গুলো নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বিভিন্ন গ্রুপের সহায়তায় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ধানমন্ডি ২৭ এর জেনেটিক প্লাজায় সাবু শপের শোরুম চালু করা হয়েছে, যেখানে পেলেও পেতে পারেন মাত্র ২ মিনিটে ট্যারা চোখ সোজা করার কথিত সমাধান, কালোকে সাদা করার কথিত জাদুকরী ক্রিম, বাচ্চা না হওয়া মায়েদের বাচ্চা হবার কথিত থেরাপি কিংবা অচল অক্ষম রোগীকে সম্পূর্ন সুস্থ করে তোলার কথিত ম্যাজিক!

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com