স্টাইল মি’র সাথে ঘরে বসেই আনুন উৎসবের আবহ

দেখতে দেখতে কেটে গেল দুই মাস; আবদ্ধ ঘরে থাকতে থাকতে প্রাণ রীতিমত ওষ্ঠাগত। এক ঘেয়েমি জীবনে ঈদের স্বাদটাও কি তাই বলে ধুসর বানিয়ে ফেলতে হবে! চাইলে কিন্তু বুদ্ধি করলে ঘরের মাঝেই হতে পারে উৎসবের আবহ। নতুন পোশাক পেলে কার না মন ভাল হয়!

অন্তত ৫ বছর ধরে যথা সময়ে দোরগোড়ায় পছন্দের ড্রেস পৌছে দিয়ে কাস্টোমারের আস্থা অর্জন করা ‘স্টাইল মি’ আপনার উৎসবকে রঙীন করতে প্রস্তুত আছে। দেশী থেকে শুরু করে পাকিস্তানি কিংবা ইন্ডিয়ান সব ধরনের পোশাকের সংগ্রহ পেতে পারেন প্রায় আড়াই লক্ষ ফলোয়ারের এই পেইজে।

ইডেন কলেজ থেকে ব্যাংকিং এন্ড ফিন্যান্সে গ্র্যাজুয়েশন করা বর্না অপ্সরি অনেকটা আগ্রহ নিয়েই শুরু করেছিলেন ‘স্টাইল মি’ এর যাত্রা। পরিবারের সকলের একান্ত সহযোগিতা আর বন্ধু শুভাকাঙ্ক্ষীদের উৎসাহে অনলাইনের গন্ডি ছাড়িয়ে ধানমন্ডি এবং বসুন্ধরা সিটিতেও মাল্টিব্র্যান্ড শপের সাথে কর্নার আছে স্টাইল মি’র।

করোনা মহামারির এই দুঃসময়ে শারীরিক সুস্থতা এবং সংক্রমণ ঠেকাতে বাড়িতে থাকা জরুরি। পাশাপাশি মনকেও রাখতে হবে সুস্থ ও সজীব। প্রিয়জন, বন্ধুবান্ধব ও স্বজনদের সঙ্গে মেতে ওঠা যাবে না ঈদের আনন্দে। মন ভাল রাখতে ঈদের দিনে নতুন পোশাকের বিকল্প আর কিই বা হতে পারে! এমন দুর্গম পরিস্থিতিতেও বর্না’র অনলাইন পেইজে অর্ডার করে ১ থেকে ১০ হাজারের মধ্যে মসলিনের কামিজ এবং শাড়ি, ডিজাইনের ড্রেস, আঘা নূর, কুর্তি এবং ক্যাটালগ আইটেমসহ সব ধরনের ড্রেস পেতে পারেন।

 

Facebook Comments