জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্তদের হাসপাতালে না যাওয়ার পরামর্শ

বিশেষ সংবাদদাতা : সাধারণ জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্তদের হাসপাতালে ভিড় না করে বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা সেবা গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডাক্তার আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, রাজধানীসহ সারাদেশের হাসপাতালে এ ধরনের সর্দি, কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের টেলিফোনে চিকিৎসা দেয়ার জন্য পৃথক একটি কর্নার স্থাপন করা হবে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা সেখানে টেলিফোন করে অসুস্থতার কথা জানালে চিকিৎসকরা তাদেরকে মোবাইল অথবা টেলিফোনে প্রয়োজনীয় চিকিত্সা ব্যবস্থাপত্র প্রদান করবেন।

রোববার (৮ মার্চ) দেশে প্রথমবারের মতো তিনজন করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্ত রোগীদের ব্যাপারে এমন পরামর্শের কথা জানান তিনি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে জনসমাগম এড়িয়ে চলা, হাঁচি, কাশি, সর্দি ও জ্বরে আক্রান্তদের কাছ থেকে ৫ ফুট দূরে থাকা এবং বাইরে থেকে বাসায় ফিরে সাবান অথবা স্যানিটাইজার দিয়ে দুই হাত ধুয়ে ফেলা ইত্যাদি নিয়ম মেনে চলা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন।

রোববার (৮ মার্চ) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা করোনাভাইরাস সম্পর্কিত নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন নারী ও দুজন পুরুষ। এর মধ্যে দুজন ইতালিফেরত। এদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। এ তিনজন ছাড়া আরও দুজনকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।