কোটচাঁদপুরে আখের পাতায় আগুন দিতে গিয়ে পুড়ে সাফ ৫ শতাধিক আম গাছ

ঝিনাইদহ সংবাদদাতা: আখের পাতায় আগুন দিতে গিয়ে পুড়ে সাফ হয়ে গেল প্রায় ৫ শতাধিক আম গাছ। ঘটনাটি শুক্রবার দুপুরে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার বলাবাড়িয়া গ্রামের মাঠে। এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার বলাবাড়িয়া গ্রামের হাসানের ছেলে আয়ুব হোসেন নিজের জমিতে আখ কেটে নেয়ার পর আখের শুকনা পাতা পরিস্কারের জন্য বেলা ১টার সময় আখের পাতায় আগুন লাগিয়ে দেয়। এ সময় মাঠের বাতাসে সেই আগুন পার্শ্ববর্তী শান্তি কাজী, সোহরাব কাজী, সিদ্দিক কাজী, মধু শেখ, আলম শেখ, সাইফুল শেখের আম বাগানে ছড়িয়ে পড়ে। ভূক্তভোগী শান্তি কাজীর ভাই অমেদুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, দুপুরের রোদে আম বাগানের নিচের শুকনা পাতায় আগুন ধরে যায়। আগুনে সর্বমোট ৮ বিঘা জমির প্রায় ৫০০ আম গাছ মুকুলসহ ঝলসে নষ্ট হয়ে গেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ায় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। সেই সাথে গ্রামের শত শত লোকজন আগুন নেভাতে মাঠে নেমে পড়ে। তারা পার্শ্ববর্তী পুকুর থেকে পানি ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে আম বাগানগুলি ঝলসিয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে উপস্থিত হন। তিনি আরো বলেন, ২/৩ বছরের চারা গাছ হলেও আম গাছে মুকুল আসা শুরু হয়েছে। যে কারণে কম করে হলেও ভুক্তভোগীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১০ লক্ষাধিক টাকা। স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের সাব অফিসার প্রদীপ ম-ল বলেন, আমরা পৌঁছানোর আগেই আগুন নিভিয়ে ফেলে গ্রামবাসী। তবে আম বাগান মালিকরা বেশ ক্ষতি হয়েছে। এ ব্যাপারে ওই এলাকার চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান খান বলেন, অসতর্কতার কারণে এমনটি ঘটেছে। যে ছেলেটা এটা করেছে সেও খুবই গরিব। তার দ্বারা ক্ষতিগ্রস্তদের সামান্যতম ক্ষতি পূরণ দেওয়া সম্ভব নয়। তবে গ্রামবাসী সকলে আগুন নেভাতে মাঠে নেমে না পড়লে ওই মাঠের আরও ফলদ বাগান পুড়ে সাফ হয়ে যেত।