হারপিক পানে অসুস্থ হয়ে মারা গেলেন সাবেক মন্ত্রীপুত্র

ডেস্ক রিপোর্ট : খুলনা জেলা পরিষদের সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান অভিজিৎ চন্দ্র চন্দ (৪০) ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তিনি সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ও খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য নারায়ণ চন্দ্র চন্দের তৃতীয় সন্তান।
পারিবারিক সূত্র দাবি করেছে, তিনি খুলনার ডুমুরিয়ার আরাজি সাজিয়ারা গ্রামে নিজ বাড়িতে বুধবার সকাল ১১ টায় হারপিক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয়।
জরুরী বিভাগের ডা. সাইদুর রহমান জানিয়েছেন, তিনি হারপিক পান করেছেন। পরে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় বিকাল ৩ টার দিকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় পাঠানো হয়।
ঢাকায় স্কয়ার হাসপাতালে বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে আইসিইউতে নেয়া হয় তাকে। হাসপাতাল সূত্র জানায়, সন্ধ্যা ৬ টা ১০ মিনিটে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে তার লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়।
পারিবারিক সূত্র আরো জানায়, অভিজিৎ বিবাহিত ও এক সন্তানের জনক। তবে কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন- সে বিষয়ে কেউ কোনো নিশ্চিত তথ্য দেননি।
বছর দুয়েক আগে অভিজিতের বোন বেবীও হারপিক পান করে আত্মহত্যা করেছিলেন।

Facebook Comments