সার্কিট হাউস মাঠে আর কখনও বাণিজ্য মেলা হবে না : মেয়র

ক্রীড়া প্রতিবেদক : খুলনা সার্কিট হাউস মাঠ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে খেলোয়াড়, ক্রীড়া সংগঠকদের দাবি ছিলো মাঠটি শুধুমাত্র খেলাধুলার ব্যবহারের জন্য। এবার খুলনা সিটি কর্পোরেশেনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক ঘোষণা দিলেন খুলনা সার্কিট হাউস মাঠে আর কখনও বাণিজ্য মেলা হবে না। গতকাল খুলনা সার্কিট হাউস মাঠে শেখ রাসেল অনূর্ধ্ব-১৩ একাডেমী কাপ ক্রিকেটের উদ্বোধনকালে একথা বলেন সিটি মেয়র। একই সাথে সার্কিট হাউস মাঠকে সংস্কার করে আরও ভালোভাবে ব্যবহার উপযোগী করার ঘোষণাও দেন তিনি। পরে সিটি মেয়র টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
সিটি মেয়র বলেন, খুলনাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো এখানে শুধুমাত্র খেলাধুলা আর দুই ঈদের নামাজের জন্য ব্যবহার করার। আমি আজ পরিস্কারভাবে আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই এই মাঠে আর কোনদিন কোন এক্সিবিউশন, কোন বাণিজ্য মেলা হবে না। এ বছর থেকে বাণিজ্য মেলা হবে সোনাডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্সে। তিনি বলেন, আমার সাথে এরই মধ্যে খুলনা চেম্বারের সভাপতির সাথে কথা বলেছি, তাদেরকে আমরা বলেছি সার্কিট হাউস মাঠ নষ্ট হয় এমন কোন কিছু যেন না হয়, তারা আমাদের সাথে একমত হয়েছে। এই মাঠে খেলাধুলা, দু’টি ঈদের নামাজ আর বড় ধরনের কোন জনসভা যেমন সরকার প্রধানের জনসভা কিংবা অন্য কোন বড় রাজনৈতিক দলের প্রধানের জনসভা হলে আয়োজন করা হবে। এর বাইরে খেলাধুলা বাদে আর কোন কিছুই হবে না।
এ সময় মাঠ খেলায়াড়দের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা চিন্তা করে মাঠ সংস্কারের প্রয়োজন বলে জানান তিনি। সিটি মেয়র বলেন, এই মাঠের সংস্কার করা প্রয়োজন। এই মাঠে ঘাষ লাগাতে হবে। এজন্য অন্তত একটা সিজনে (মৌসুম) নিজেদের খেলাধুলা থেকে একটু বিরতি দিতে হবে। মাঠ সংস্কারের জন্য এর কর্তৃপক্ষ পিডব্লিউডিকে আমরা বলবো। আবারও যাতে এই মাঠটি আরও সুন্দর হয় সে বাপারে আমরা চেষ্টা করবো। সিটি মেয়রের এমন ঘোষণার পর উপস্থিত ক্ষুদে খেলোয়াড়, ক্রীড়া সংগঠক, ক্রিকেট কোচহ উপস্থিত সকলে হাততালি দিয়ে উচ্ছাস প্রকাশ করেন।
পরে খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য ও সার্কিট হাউস মাঠ আন্দোলন কমিটির সদস্য সচিব সুজন আহমেদ বলেন, আমার ২ বছর আগে থেকে যে আন্দোলন করে আসছিলাম, মেয়র মহোদয়ের এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে আমাদের সেই আন্দোলন স্বার্থক হলো। এজন্য তিনি সিটি মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এর আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে প্যানেল মেয়র ও ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু সভাপতির বক্তব্যে মাঠটি বাণিজ্য মেলার জন্য আর ব্যবহার না হয় সেজন্য সিটি মেয়রের কাছে দাবি করেন।
প্যানেল মেয়র ও টুর্নামেন্ট কমিটির আহ্বায়ক আলী আকবর টিপুর সভাপতিত্বে ও কমিটির সদস্য সচিব সুজন আহমেদের পরিচানলায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সম্পাদক শেখ হেমায়েত উল্লাহ ও টুর্নামেন্টের মিডিয়া পার্টনার দৈনিক সময়ের খবর পত্রিকার সম্পাদক তরিকুল ইসলাম। ক্রিকেট কোচ আজিজুর রহমান জুয়েলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফুটবল কোচ এজাজ আহমেদ, বিসিবির খুলনা জেলা কোচ শামছুল আলম রনি, ক্রিকেট কোচ এজেএম ওহিদুল ইসলাম সেলিম, সোহাগ, শাহীন, রিম, জোবায়ের হোসেন পরান, হাসানুজ্জামান সবুজ প্রমুখ।

Facebook Comments