বেনাপোলে অসহায় কৃষকের ফসল পুড়িয়ে ছাই করলো দুর্বৃত্তরা

এস এম মারুফ বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের বেনাপোলে গভীর রাতে এক অসহায় কৃষকের ২৫ কাঠা জমির কলাই পুড়িয়ে ছাই করে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক- শাহাবুদ্দিন (৪০) সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার মৃত আঃ গনির ছেলে। সে দীর্ঘ ১৭ বছর ধরে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন বড়আচড়া গ্রামে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করেন।
সোমবার (৯ ডিসেম্বর) স্থানীয়রা জানায়, রবিবার রাত সাড়ে ১১ টার সময় চাষি শাহাবুদ্দিনের বড় আচড়া গ্রামের পশ্চিম মাঠে পাকা কলুই ক্ষতে আগুন দেখতে পেয়ে তাকে ডাকলে সে ও তার পরিবারের লোকজন সহ আমরা সেখানে যায় এবং আগুন নেভানোর চেষ্টা করি। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার আগেই বেশীর ভাগ ফসল আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সেই সাথে আগুনের তাপে ৪ টি আম গাছও পুড়ে যায়।
চাষি শাহাবুদ্দিন বলেন, আমি একা এখানে এসে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করছি প্রায় ১৭ বছর। আমার নিজের কোন জমি জায়গা নেই। আমি অন্যের জমি বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করি। এখানে আমার তেমন কোন আত্মীয় স্বজন না থাকায় প্রতি বছর কে বা কারা আমার ফসলি ক্ষেত নানাভাবে ক্ষতি করে। আমি অসহায় একজন গরীব কৃষক এভাবে প্রতি বছর আমার ফসল ক্ষতি হওয়ায় আমি আরও বেশী অসহায় হয়ে পড়েছি। পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করাটা অনেক কষ্টকর হয়ে পড়েছে, সেই সাথে আমার সন্তানের পরাশোনায়ও ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।
৪ নং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বজলুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি ও কয়েকজনের নামও পেয়েছি। শুনার পর ক্ষতিগ্রস্ত ওই চাষিকে বলা হয়েছে- থানায় গিয়ে একটা অভিযোগ দায়ের করতে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে যতোটুকু সহযোগিতা করা লাগে তা আমি করবো। কৃষকের এমন ক্ষতি মেনে নেওয়া যায় না। এমন জঘন্য কর্মকাণ্ডের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা জরুরী। যাতে পরর্বতীতে কেউ কোন চাষির ফসল নষ্ট করতে না পারে।
এ বিষয়ে বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন খান বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত চাষি অভিযোগ জানালে পুলিশ তদন্তসাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Facebook Comments