না ফেরার দেশে চবির সেই নুসরাত

১২ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মৃত্যু কাছে হার মেনে না ফেরা দেশে চলে গেলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইংরেজি বিভাগের ১২-১৩ সেশনের ছাত্রী নুসরাত চৌধুরী। আজ শনিবার সকাল দশটার দিকে মারা যান চবির এই মেধাবী ছাত্রী। আজ বিকেলে আসরের নামাজের পর চট্টগ্রামের হালিশহর বি ব্লক ঈদগাহ মাঠে নুসরাতের জানাযা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।


গত ২১ জানুয়ারি সকাল ১০টায় চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে দীর্ঘ ১২ দিন চট্টগ্রামের সিএসসিআর হসপিটালের আইসিইউতে চিকিৎসারত ছিলেন।
ঘটনার দিন তাৎক্ষণিক অপারেশন করাতে না পারায় নুসরাতের মস্তিষ্কে ভিতরের অংশে রক্ত জমাট ভেদে ব্রেন অনেকবেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এমনকি ব্রেন ড্যামেজ হওয়ার সম্ভাবনাও ছিলো। প্রাথমিক চিকিৎসার পর পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচঘন্টা সময় নিয়ে ডাক্তাররা অপারেশন করেন। তখন থেকেই নুসরাত কোমায় এবং আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।
নুসরাতের সহপাঠীরা জানান, নুসরাতের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা চলছিলো। চারটা পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর পঞ্চম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার জন্য ২১ তারিখ নুসরাত রওয়ানা দিলে আসার পথেই মারাত্মক রোড এক্সিডেন্টের শিকার হয় নুসরাত। নুসরাতের পরিবার এবং সহপাঠীরা তাঁর আত্মার মাগফেরাতের জন্য সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন।
নুসরাত চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের মিরাসরাই। বাবা মৃত কবির হোসেন চৌধুরী এবং মা রেহেনা আকতার। স্বামী ফখরুল ইসলাম। তিনি একটি ফুটফুটে চার বছর বয়সী কন্যা সন্তানের জননী।

Facebook Comments