ফাইনাল পরীক্ষা দিতে এসে কোমায় চবি শিক্ষার্থী নুসরাত

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইংরেজি বিভাগের ১২-১৩ সেশনের শিক্ষার্থী নুসরাত চৌধুরী গত ২১ জানুয়ারি সকাল ১০ টায় চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় মাথায় গুরুতর আঘাত পান। প্রথমে স্থানীয় বিএমবি হসপিটাল পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল এবং বর্তমানে তিনি চট্টগ্রামের সিএসসিআর হসপিটালের আইসিইউতে চিকিৎসারত আছেন।


তাৎক্ষণিক অপারেশন করাতে না পারায় নুসরাতের মস্তিষ্কে ভিতরের অংশে রক্ত জমাট ভেদে ব্রেন অনেকবেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এমনকি ব্রেন ড্যামেজ হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা সময় নিয়ে ডাক্তাররা অপারেশন করেন। বর্তমানে নুসরাত কোমায় এবং আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে আছেন। দুইদিনেই খরচ হয়েছে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা। কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসার কথা। যেখানে প্রতিদিনে শুধু আইসিইউতে রাখা বাবদ ৫০ হাজার টাকা প্রয়োজন।
নুসরাতের সহপাঠীরা জানান, নুসরাতের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা চলছিলো। চারটা পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর পঞ্চম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার জন্য ২১ জানুয়ারি নুসরাত রওয়ানা দেয়। দুর্ভাগ্যবশত আসার পথেই মারাত্মক রোড এক্সিডেন্টের শিকার হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে নুসরাত। তার একটা ফুটফুটে চার বছর বয়সী মেয়ে আছে। নুসরাতের কোনো ভাই নেই এমনকি বাবাও বেঁচে নেই। তার মা কিংবা স্বামীর পক্ষে এই ব্যয়বহুল এবং দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসার খরচ চালানো প্রায় অসম্ভব। তাই নুসরাতের সহপাঠীরা সকলের নিকট দোয়া এবং সহযোগিতা কামনা করেন।

নুসরাত চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের মিরসরাই। বাবা মৃত কবির হোসেন চৌধুরী এবং মা রেহেনা আকতার। স্বামী ফখরুল ইসলাম। তিনি একটি কন্যা সন্তানের জননী। নুসরাতকে বাঁচাতে আপনিও এগিয়ে আসতে পারেন।


সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা:ব্যাংক একাউন্ট ফখরুল ইসলাম (স্বামী )DBBL savings AccountAc no: 102.101.83734
বিকাশ নাম্বার আইয়ুব- 01827727756( সহপাঠী) সৌরভ- 01869498457(সহপাঠী)রেজা- 01829572812 (সহপাঠী)ইমরান- 01674552604( সহপাঠী)

Facebook Comments