শেষ দিনে কেমন কাটলো গোবিন্দগঞ্জে নির্বাচনী প্রচার

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা সংবাদদাতা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণার শেষদিন ছিলো বৃহস্পতিবার। আগামীকাল (শুক্রবার) সকাল আটটায় শেষ হচ্ছে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা।

কেমন প্রচারণা চালালো গোবিন্দগঞ্জে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীরা প্রচারণা তুলে ধরা হলো:

আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোয়ার হোসেন চৌধুরী উপজেলার পশ্চিম অঞ্চলের পাঁচটি ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আতাউর রহমান সরকারের নেতৃত্বে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রধান আতাউর রহমান বাবলু, সহ-সভাপতি ফেরদৌস আলম রাজু, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আহসানুল শেখ সুমন ও জাতীয় চার নেতা পরিষদের উপজেলা সভাপতি সিজানের সমন্বয়ে গড়া একটি টিম উপজেলার পূর্বাঞ্চলের কোচাশহর, মহিমাগঞ্জ, শালমারাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন।

এছাড়াও আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও উপজেলা ব্যাপী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন।

অপরদিকে, বিএনপির প্রার্থী ফারুক কবির আহমদের প্রার্থীতা হাইকোর্ট কর্তৃক স্থগিত হওয়ায় ওই শিবিরে ছিলো হতাশা আর উৎকন্ঠা। আপিলে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া যায় কিনা তা নিয়ে দুঃচিন্তায় ছিলো তাঁর কর্মী সমর্থকরা। জাতীয় পার্টির প্রার্থী কাজী মশিউর রহমান উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে গণসংযোগ করলেও শেষ বিকালে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের একটি ঘোষণায় পার্টির নেতাকর্মীরা বিচলিত হয়ে পড়ে। বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পাটির প্রার্থী ছামিউল আলম রাসু কাটাবাড়ী ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন। বাংলাদেশ ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের প্রার্থী হাফেজ মাওলানা মুফতি সৈয়দ তৌহিদুল ইসলাম তুহিন নির্বাচনী অফিসে কর্মীসভা শেষে কাটাবাড়ী ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন। জাকের পার্টির প্রার্থী আবুল কালাম দিনব্যাপী বিভিন্ন ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন। মুসলিম লীগের প্রাথী সানোয়ার হোসেন সানু ও এনপিপির প্রার্থী খন্দকার মো. রাশেদ বিভিন্ন জায়গায় গণসংযোগ করেন।

Facebook Comments