‘ভোট ডাকাতি হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা’

voteঢাকা, ১৮ ফেব্রুয়ারি: আগামীকাল (বুধবার) থেকে শুরু হওয়া প্রথম পর্বের উপজেলা নির্বাচনে ভোটগ্রহণে কোনো প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন, ভোট ডাকাতি ও তান্ডবের মতো ঘটনা ঘটলে ১৯ দলীয় জোট তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিক রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, ১৯ দল সব সময় উপজেলার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে, এবাবের নির্বাচনে অংশগ্রহণ আমাদের চলমান আন্দোলনের একটি অংশ।
এ সময় তিনি নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশে বলেন, জনগণকে নির্বিঘ্নে ভোট দেয়ার সুযোগ করে দিতে হবে। তা না হলে ৫ জানুয়ারির মতো কলঙ্কের দাগ মাথায় নিয়ে ঘুরতে হবে।
তিনি বলেন, ঝিনাইদহ, শরীয়তপুর, জামালপুর, সরিষাবাড়ী, ভোলাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় এবং স্থানীয় নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে যে, ১৯ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থীর কর্মীদের উপর হামলা, হুমকিসহ হয়রানি এবং বাড়িতে ঢুকে বিশেষ করে নারী ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য শাসানো হচ্ছে।
সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ না হলে নির্বাচন বর্জন করবেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রিজভী বলেন,  নির্বাচনের দিন সকাল থেকেই বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটি ডেস্ক স্থাপন করা হবে সেই ডেস্কের মাধ্যমে নির্বাচন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে কোনো প্রকার অভিযোগ পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments