এবার ঘরে বসে আয়কর রিটার্ন দাখিল

আগামী ১ নভেম্বর থেকে অনলাইনে ঘরে বসে আয়কর রির্টান দাখিল করতে পারবেন সারা দেশের কারদাতারা।ওইদিন ঢাকায় জাতীয় কর মেলায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত আনুষ্ঠানিকভাবে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

আজ বৃহস্পতিবার থেকে পরীক্ষামূলকভাবে অনলাইনে আয়কর দেয়ার এই পদ্ধতির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় কর অঞ্চল-৪ এই পদ্ধতির উদ্বোধন করেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ডিজিটাল এই পদ্ধতিতে ই-পেমেন্টের মাধ্যামে কর পরিশোধও করা যাবে। জমা দেয়া বিবরণীর প্রাপ্তি স্বীকারপত্র এবং সার্টিফিকেটও দেয়া হবে অনলাইনে।

ডিজিটাল এই কার্যক্রম জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) আয়কর অনুবিভাগের স্ট্রেনদেনিং গভর্ন্যান্স ম্যানেজমেন্ট প্রকল্পের (এসজিএমপি) আওতায় বাস্তবায়ন হচ্ছে। প্রকল্পটির মাধ্যমে দেশব্যাপী ৩১টি কর অঞ্চলের আওতাধীন মাঠপর্যায়ের ৬৪৯টি আয়কর সার্কেল অফিস মূল সার্ভারে যুক্ত করা হয়েছে।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) আর্থিক সহায়তায় ভিয়েতনামভিত্তিক আইটি প্রতিষ্ঠান এফপিটি ইনফরমেশন সিস্টেম করপোরেশন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্পের মোট ব্যয় হচ্ছে ৫১ কোটি টাকা।

অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন,‘মানুষ যাতে সহজে কর প্রদান করতে পারে এই জন্য অনলাইনে কর প্রদানের পদ্ধতি চালু করা হচ্ছে। এখন কর দিতে অনেকগুলো করে ফরম পূরণ করতে হয়। অনলাইনে কর দিতে এই ফরম পূরণ করতে হবে না। সহজেই ঘরে বসে কর প্রদান করা যাবে। এতে আয়করও বেশি আদায় হবে ঝামেলাও হবে না। এই পদ্ধতিতে মানুষ হয়রানি থেকে রেহাই পাবে।’

তিনি বলেন, ‘আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশকে আমরা সার্বিকভাবে এগিয়ে নিতে চাই। দেশের এই ইতিবাচক পরিবর্তনের বড় অগ্রগতি হচ্ছে রাজস্ব আহরণ প্রতিষ্ঠানে প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহার যুক্ত হওয়া।’

অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান জানান, কর ব্যবস্থায় ডিজিটাল কার্যক্রম সচলের অংশ হিসেবে আজ অনলাইনে রিটার্ন দাখিল কার্যক্রম পরীক্ষামূলক শুরু হলো।এতে সহজে একজন করদাতা তার কর পরিশোধ করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে অনলাইনে রিটার্ন দাখিল কার্যক্রম সম্পর্কে প্রজেক্টরের মাধ্যমে বিস্তারিত তুলে ধরেন এনবিআর সদস্য ও এসজিএমপির প্রকল্প পরিচালক কালিপদ হালদার। তিনি জানান, ডিজিটাল এই ব্যবস্থায় চালান নম্বর ব্যবহার করে অথবা অনলাইনে কর পরিশোধ করা যাবে।দুই ধরনের সুযোগই এখানে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘এনবিআরে একটি সিপিসি স্থাপন করা হয়েছে যেখান থেকে নেটওয়ার্ক অপারেশন সেন্টার এবং করদাতাদের জন্য কল সেন্টার পরিচালনা করা হবে। করদাতাদের তথ্যের বিভিন্ন ডাটাবেজ এবং প্রয়োজনীয় রিপোর্ট জেনারেশন ও অটোমেশন পদ্ধতির মাধ্যমে সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।’

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আফজর এইচ উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।

Facebook Comments