মার্চ ৬, ২০২১

Latest News Before Everyone in Bangladesh

মারা গেছেন অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী মার্গারিটার বাবা মামুন

১ min read

এবারের রিও অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত রাশিয়ান অ্যাথলেট মার্গারিটা মামুনের বাবা আবদুল্লাহ আল মামুন মারা গেছেন। শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে রাশিয়ার মস্কোতে নিজ বাসায় মারা যান তিনি। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মার্গারিটা মামুনের ফুফাতো ভাই রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ধরমপুর মহাবিদ্যালয়ের প্রভাষক মো. শামসুজ্জোহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
দুর্গাপুরের ক্ষুদ্রকাশিপুর গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের চার মেয়ে ও তিন ছেলের মধ্যে সবার ছোট মামুন। এলাকায় তিনি ‘শিপার’ নামে পরিচিত। তিনি দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মেট্টিক পাশ করেন। এরপর তিনি একাদশ শ্রেণিতে রাজশাহী কলেজে ভর্র্তি হয়েছিলেন। ওখান থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে ভর্তি হন রাজশাহী মেডিকেল কলেজে। কিন্তু সেখানে তিনি পড়াশোনা শেষ করেননি।
শিক্ষাবৃত্তি নিয়ে ১৯৮৩ সালে তিনি রাশিয়ায় চলে যান। সেখানে রুশ কন্যা আন্নাকে বিয়ে করে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। ১৯৯৫ সালের ১ নভেম্বর মস্কোতে জন্ম হয় মামুনের মেয়ে মার্গারিতা মামুনের। যিনি এবছর রিদমিক জিমন্যাস্টিকসে সোনাজয়ী। দ্বিতীয় সন্তান ফিলিপ আল মামুনের জন্মও সেখানে। মামুন গত কয়েক বছর ধরে অসুস্থতার কারণে দেশে আসতে পারেননি।
গত মঙ্গলবার মামুনের সুস্থতা কামনা করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছিলেন রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘মন খারাপ করা একটা খবর। অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী মার্গারিটা মামুনের পিতা, মামুন ভাই গুরুতর অসুস্থ। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন। বিস্তারিত জানার চেষ্টা করবেন না দয়া করে।
পশ্চিমা দেশগুলোতে ব্যক্তির অসুস্থতার বিষয়গুলো গোপন রাখার বিধান আছে। তার প্রতি সম্মান জানিয়ে আমরা সেটা থেকে বিরত থাকি এবং আল্লাহতায়ালার কাছে তার জন্য দোয়া করি।’
প্রভাষক মো. শামসুজ্জোহা জানান, পারিবারিকভাবে মার্গারিটা মামুনের বাবার মরদেহ দেশে আনার পরিকল্পনা নেই। তবে সরকার চাইলে তার মরদেহ দেশে আনতে পারে। অন্যথায় তাকে রাশিয়াতেই দাফন করা হবে।

Facebook Comments