পুরোপুরি নিষিদ্ধ’ হয়নি রুশ দল

ঢাকা: অ্যাথলেটদের নিষিদ্ধ ওষুধ সেবনের দায়ে আসন্ন অলিম্পিকে রাশিয়াকে ‘পুরোপুরি নিষিদ্ধ না করার’ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি।
ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে ২০১৬ অলিম্পিক শুরু হচ্ছে আগামী ৫ আগস্ট। ‘ডোপিং কেলেংকারির’ জন্য এতে রুশ ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড অ্যাথলেটদের অংশগ্রহণ ইতোমধ্যে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
আইওসি’র সিদ্ধান্তের ফলে রাশিয়ার প্রতিযোগীদের অলিম্পিকে অংশ নেবার জন্য কঠোর শর্ত পূরণ করতে হবে।
রাশিয়ায় অ্যাথলেটরা রাষ্ট্রীয় মদদে ২০১১-২০১৫ সময়কালে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় নিষিদ্ধ শক্তিবর্ধক ওষুধ সেবন করেছিলেন- এ অভিযোগ প্রমাণ হবার পর কিছুদিন আগেই ওই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।
তদন্তে বলা হয়, ২০১২’র লন্ডন অলিম্পিক এবং সোচিতে ২০১৪’র শীতকালীন অলিম্পিকে রুশ অ্যাথলেটরা ডোপিং করেছিলেন এবং তার প্রমাণ নষ্ট করার কাজে ক্রীড়া প্রশাসনের কর্মকর্তারা সক্রিয় ভুমিকা নিয়েছিলেন।
ডোপিং এর জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন এমন কোনও রুশ অ্যাথলেট আসন্ন রিও অলিম্পিকে অংশ নিতে পারবেন না।
এরপর এটাই দেখার ব্যাপার ছিল যে, এ জন্য অলিম্পিকে রাশিয়ার অংশগ্রহণ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয় কিনা।
তবে এখন দেখা যাচ্ছে, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি সেরকম কোনও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলো না। তার পরিবর্তে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবার ক্ষমতা বিভিন্ন স্পোর্টস ফেডারেশনের ওপরই ছেড়ে দিয়েছে আইওসি।
ওই ফেডারেশনগুলো চাইলে কোনও নির্দিষ্ট অ্যাথলেট বা কোনও একটি খেলার জন্য পুরো রুশ দলকে নিষিদ্ধ করতে পারবে।

Facebook Comments