৬ দাবিতে কবি নজরুল কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

৬ দাবিতে কবি নজরুল কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : পরিবহন ব্যবস্থা চালু, ছাত্রাবাস সংস্কারসহ ছয় দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন কবি নজরুল সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২১ মার্চ) বেলা ১১টা থেকে কলেজের মূলফটকে প্ল্যাকার্ড হাতে শিক্ষার্থীরা ছয় দফা দাবি তুলে স্লোগান দিতে থাকেন। বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীরা বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ আন্দোলন ও মানববন্ধন করেন।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো- ৯ কোটি টাকার বাস সার্ভিস, শহীদ শামসুল আলম হল সংস্কার, প্রতিটি ভবনে ছাত্রীদের কমনরুম, পরিত্যক্ত ডাফরিন হল চালু করা, ক্লাস-ওয়াশরুম ডিজিটালাইজেশন ও কলেজ ক্যান্টিন পুনরায় চালু করা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, বিগত ১০ বছরে আমাদের পরিবহন খাতে প্রায় ৯ কোটি টাকা জমা হওয়ার কথা। অথচ আমাদের বাস নেই। আমাদের ছাত্রাবাস সংস্কারে কলেজ প্রশাসনের কোনো উদ্যোগ নেই। মেয়েদের জন্য নেই কোনো ওয়াশরুমের ব্যবস্থা। ক্যান্টিন চালু হলেও তা বন্ধ। কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কলেজে নানা উন্নয়নমূলক কাজ শুরু করলেও বর্তমান অধ্যক্ষ আসার পর তা বন্ধ হয়ে গেছে।

অ্যাকাউন্টিং বিভাগের শিক্ষার্থী রাফি বলেন, অ্যাকাউন্টিং বিভাগে এক হাজার ৫০০ শিক্ষার্থী প্রতিবছর শিক্ষা সফর ফি দেয় ৭৫ হাজার টাকা। দুই বছরে প্রায় দেড় লাখ টাকা জমা হয়। অথচ আমরা শিক্ষা সফরে যেতে চাইলে তারা আমাদের টাকা দিতে চায় না। হিসাব চাইলে তারা অন্য কথা বলে। আমাদের জন্য তারা বরাদ্দ দেয় ২০০ টাকা। তাহলে বাকি টাকা যায় কোথায়?

কলেজের ওয়েবসাইটের তথ্য মতে, ১৭ হাজার শিক্ষার্থীর কাছ থেকে পরিবহন ফি ৪০০ টাকা করে বছরে ৬৮ লাখ, ছাত্র সংসদ ফি ২৫ টাকা করে বছরে চার লাখ ২৫ হাজার, রেঞ্জার ফি ১০ টাকা করে এক লাখ ৭০ হাজার, রেড ক্রিসেন্ট ফি ২০ টাকা করে তিন লাখ ৪০ হাজার টাকা আদায় করে কলেজ প্রশাসন। অথচ কলেজে নেই কোনো পরিবহন, রেড ক্রিসেন্ট ও ছাত্রসংসদ। এছাড়া রেঞ্জার ইউনিট চালুই হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আমেনা বেগম সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।