৫ ধরনের প্রতারককে এড়িয়ে না চললেই বিপদ!

৫ ধরনের প্রতারককে এড়িয়ে না চললেই বিপদ!

লাইফস্টাইল ডেস্ক : একজন মানুষ যত ভালোই হোক না কেন, তিনি যদি প্রতারক হন তাহলে কখনো না কখনো তার আসল রূপ সবার সামনে আসবেই। কিছু মানুষ অনিচ্ছাকৃতভাবে তাদের সঙ্গীর সঙ্গে প্রতারণা করেন, আবার কেউ মজার ছলে সঙ্গী পরিবর্তন করেন একের পর এক।

এ ধরনের মানুষকে কখনো বিশ্বাস করা উচিত নয়। তাদের থেকে বরং দূরে থাকার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। মোটামুটি ৫ ধরনের প্রতারক আমাদের আশপাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে। তাদেরকে শনাক্ত করার উপায় জেনে নিন-

>> শিকারি মনোভাবের প্রতারকরা সর্বদা মানুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেন। তারা বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান, শুধু নিজেদের চাহিদা পূরণের জন্য। এমন প্রতারকরা মানুষকে তোষামোদের কাজে বেশ পারদর্শী।

>> এক ধরনের প্রতারকরা খুবই নম্র ও ভদ্র স্বভাবের হন। তারা ভদ্র প্রতারক নামেই পরিচিত। এ কারণে তাদের ব্যক্তিত্ব দেখে কেউই টের পান না যে তিনি আসলে একজন প্রতারক।

তাদের ভদ্র স্বভাবের কারণে বেশিরভাগ মানুষই তাদেরকে বিশ্বাস করে মনের সব কথা খুলে বলেন। আর ওই প্রতারক ব্যক্তি ঠিক দুর্বল সময়ে ওইসব মানুষকে আঘাত করেন।

>> আরও এক ধরনের প্রতারক আছেন, যারা মানুষের সামনে সর্বদা নিজেকে দরিদ্র, ভাঙা হৃদয়ের ব্যক্তি হিসাবে চিত্রিত করেন। নিজের দুঃখের কথা বলে তারা অন্যদের কাছ থেকে স্নেহ ও ভালবাসা পাওয়ার চেষ্টা করেন।

যারা এমন ব্যক্তিদের উপর সহানুভূতি দেখান, পরবর্তী সময়ে তাদের ঘাড়েই কাঁঠাল ভেঙে খান ব্যথিত হৃদয়ের প্রতারকরা।

>> সুবিধাবাদী স্বভাবের প্রতারকরা নিজেদের সুবিধা ও স্বাচ্ছন্দের জন্য সর্বদা সুযোগ খোঁজেন। এজন্য তারা অন্যদের বোকা বানান কিংবা ভালোবাসার ফাঁদে ফেলেন। তারপর নিজ স্বার্থ হাসিল করে তারা পালিয়ে যান।

>> প্রতারকদের মধ্যেও পেশাদার আছেন বৈ কি! এ ধরনের প্রতারকরা সাধারণত সম্পদশালী ডিভোর্সি বা সন্তানের বাবা বা মাকে বিয়ে করেন। তারপর পরের ধনে পোদ্দারি করেন তারা।

ব্যবসায়িক ভ্রমণের নাম করে বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে আনন্দ করে বেড়ান তারা। কখনো কখনো তারা পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে যান। এসব নিয়ে কিন্তু তারা অনুশোচনা বোধ করেন না বরং বিষয়গুলো লুকিয়ে রাখেন ছলচাতুরি করে।