সৌদি সাংবাদিক নিখোঁজের ঘটনায় উদ্বিগ্ন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তুরস্কে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তিনি ঘনিষ্ঠ মিত্র সৌদি আরবের বিরুদ্ধে কোনো শক্ত মন্তব্য করেননি।

সোমবার ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমি এ ঘটনায় উদ্বিগ্ন। আমি এ ধরনের কথা শুনতে পছন্দ করি না। আশা করি এর সত্যতা বের হয়ে আসবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এই মুহূর্তে এই বিষয়টি সম্পর্কে কেউ কোনো কিছু জানে না। চারপাশে খুবই দুঃখজনক কথা ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমি এটি একদমই পছন্দ করছি না।’

এর আগে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স গতকাল তার টুইটার পেজে লিখেছেন, সাংবাদিক জামাল খাশোগির ঘটনা শুনে তিনি খুবই বিব্রত হয়েছেন।

তিনি আরো বলেছেন, ‘যদি ঘটনাটি সত্যি হয় তাহলে এটা খুবই একটা করুণ দিন। সারা বিশ্বে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সহিংসতা হলো বাকস্বাধীনতা ও মানবাধিকারের জন্য হুমকি। মুক্ত বিশ্ব এর জবাব পাওয়ার অধিকার রাখে।’

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সৌদি সরকারকে সাংবাদিক জামাল খাশোগির নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন এবং তিনি স্বচ্ছ ফলাফল প্রকাশের আশা করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা জামাল খাশোগি ওয়াশিংটন পোস্টের জন্য লিখেন। তিনি সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নীতির সমালোচনা বেশ কয়েকটি কলাম লিখেছেন।

গত মঙ্গলবার খাশোগি তুরস্কের এক নারীকে বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতে ইস্তাম্বুল শহরে সৌদি কনস্যুলেটে যান এবং এরপর তিনি আর ফিরে আসেননি।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের একজন উপদেষ্টা রবিবার বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন যে, সাংবাদিক খাশোগিকে হয়ত কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

সূত্র: পার্স টুডে ও আল জাজিরা