সৌদি প্রবাসী মহিলার স্বামীর আত্মহত্যা

আখাউড়া সংবাদদাতা : সৌদি আরব প্রবাসী স্ত্রীর ওপর অভিমান করে জহির মিয়া (৩৫) নামে এক ব্যক্তি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বাউতলা গ্রামের এ ঘটনা ঘটে।

বুধবার সকালে নিজ বাড়ি থেকে জহিরের লাশ উদ্ধার করে আখাউড়া থানা পুলিশ। নিহত জহির ওই গ্রামের মৃত বশরুদ্দিনের ছেলে। তিনি দুই সন্তানের জনক ছিলেন।

পুলিশ ও নিহতের পারিবার জানায়, দালালের মাধ্যমে জহির তার স্ত্রীকে কিছুদিন আগে সৌদি আরবে পাঠান। স্ত্রীকে সৌদি প্রবাসে পাঠানোর পর অনেক চেষ্টা করেও যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ ও কথা বলতে না পারায় তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন।

জহিরের ভাই জসিম বলেন, সৌদি আরব থেকে ফিরে আসা গ্রামের বহু লোককে তার স্ত্রীর মালিকের মোবাইল ফোন নম্বর দিয়ে আরবীতে কথা বলিয়ে তার স্ত্রীকে চাওয়া হতো। কিন্তু তার স্ত্রীর কোনো খোঁজ পেত না জহির।

তার ধারণা, হয়ত এ জন্যই স্ত্রীর ওপর অভিমান ও কষ্ট সহ্য করতে না পেরে জহির গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।

আখাউড়া থানার (ওসি, তদন্ত) মোশারফ হোসেন তরফদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জহিরের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে, তার মুত্যুর রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।

Inline
Inline