সরকারের জনপ্রতিনিধিত্ব নাই: মঈন খান

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, আজকে সরকার যতো বড় বড় কথা বলুক না কেন, তাদের কোনো জনপ্রতিনিধিত্ব নাই। তারা গায়ের জোরে, অস্ত্রের জোরে সন্ত্রাসের মাধ্যমে টিকে আছে।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপি আয়োজিত মানবন্ধনে তিনি একথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনটির আয়োজন করা হয়।

সরকারের সমালোচনা করে মঈন খান বলেন, তাদের একমাত্র উদ্দেশ্য একদলীয় শাসনের মাধ্যমে দেশ শাসন করতে চায়। যেখানে কারও কোনো স্বাধীনতা থাকবে না।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানে প্রত্যেক নাগরিকের চিকিৎসা অধিকার রয়েছে। বিএনপির প্রতিটি সৈনিককে এই অধিকার ছিনিয়ে নিতে হবে।

মঈন বলেন, কোনো স্বৈরাচারী সরকার কোনো মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দেয় না। অধিকার আদায় করে নিতে হয়।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজজামান সেলিম, আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম, যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন প্রমুখ।