মাইগ্রেশন চান নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা

মাইগ্রেশন চান নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনিয়ম-অসুবিধা কথা উল্লেখ করে মাইগ্রেশনের দাবি জানিয়েছেন নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৬০ জন শিক্ষার্থী। চতুর্থ বর্ষের এই শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, কলেজের অনিয়মের প্রতিকার চাওয়ায় তাদের গুম করার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

রোববার (২১ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এই দাবি জানান তারা।


শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা মানসম্মত চিকিৎসক হতে চাই। আমাদের অন্যত্র মাইগ্রেশনের ব্যবস্থা করা হোক। অন্যথায় আমাদের ভবিষ্যতের পাশাপাশি ৬০টি পরিবার অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে।

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে জানান, ২০১৭-১৮ বর্ষে কলেজে ভর্তি হতে আসলে কর্তৃপক্ষ তাদের জানায় যে, কলেজের অভ্যন্তরীণ কিছু সমস্যার কারণে ২০১৬ সালে তাদের পূর্ববর্তী শিক্ষার্থীরা মাইগ্রেশন করে অন্যত্র চলে গেছে।

শিক্ষার্থীরা বলেন, ক্লাস শুরুর পর প্রথম বর্ষ কোনো সমস্যা ছাড়া কাটলেও দ্বিতীয় বর্ষে জানতে পারি, এই কলেজের বিএমডিসি রেজিস্ট্রেশন নেই। এমনকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশনও ছিল না। এ বিষয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাওয়া হলে তারা বারবার আশ্বস্ত করেন যে, দ্রুত বিএমডিসি ও ঢাকা ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করবেন।


করোনাকালীন অন্যান্য মেডিকেল কলেজগুলোতে অনলাইন ক্লাস হলেও নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজে চতুর্থ বর্ষের ক্লাস ঠিকমতো হয়নি বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। হাসপাতালে পর্যাপ্ত চিকিৎসক ও সুযোগ-সুবিধা না থাকারও অভিযোগ করেন তারা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, পর্যাপ্ত রোগীর অভাবে তৃতীয় বর্ষে আমরা শুধু থিওরি ক্লাস করেছি। চতুর্থ বর্ষে ওয়ার্ড ক্লাসের কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। বর্তমানে মেডিসিন ও সার্জারি বিভাগে কোনো চিকিৎসক নেই বলে জানান শিক্ষার্থীরা।